জরুরি সেবা পাওয়া যাচ্ছে না হেল্পলাইন ৯৯৯’এ

ফারমিনা তাসলিম : তাৎক্ষণিক সহায়তার হেল্পলাইন ‘ত্রিপল নাইন’ উদ্বোধনের তিন দিনের মধ্যে ষাট হাজার মানুষ জরুরি সেবা নিয়েছে। তবে লাইনটি সব সময়ই ব্যস্ত থাকায় অনেকই জরুরি সেবা নিতে পারছে না।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, চাহিদার কথা বিবেচনায় নিয়ে খুব শীঘ্রই জনবলসহ প্রযুক্তি সুবিধা বাড়ানো হবে। তিন দিন আগে চালু হয়েছে পুলিশের জরুরি হেল্পলাইন সেবা ‘ত্রিপল নাইন’।

প্রতিদিন গড়ে বিশ হাজার মানুষ জরুরি প্রয়োজনে ত্রিপল নাইনে ফোন দিচ্ছেন। শুরুর পর দিন থেকে তিন দিনেই ফোন এসেছে প্রায় ষাট হাজার। এ্যাম্বুলেন্স, চিকিৎসা ও আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত পরামর্শ দেয়া হচ্ছে ত্রিপল নাইন থেকে।

তবে চাহিদার তুলনায় জনবল ও যান্ত্রিক সুবিধা কম থাকায় লাইন সব সময়ই ব্যস্ত থাকছে। যে কারণে তাৎক্ষণিক সেবা পাওয়া যায় না।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা বলেন, ফোন করলে সবসময় লাইনটা ব্যস্ত পাওয়া যায়। প্রয়োজনীয় সময়ে আমরা যোগাযোগ করতে পারছি না। সঠিক সময়ে জরুরি সেবা পাওয়া যায় না। তাহলে এ জরুরি সেবা না দেওয়াই ভালো ছিল।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, জনগণের চাহিদা বুঝে আরও পাঁচশ জনবল বাড়ানোর পরিকল্পনা আছে। একই সঙ্গে প্রযুক্তিগত সুবিধাও বৃদ্ধি করা হবে।

পুলিশের এ আইজি সহেলি ফেরদৌস বলেন, এটির সক্ষমতা বাড়ানো নির্ভর করছে বিটিসিএলের ওপর। বিটিসিএল আমাদের যতটুকু সংযোগ দিয়েছে ততটুকুতে আমাদের কাজ করতে হচ্ছে। এ হেল্পলাইন চালু রেখেছি এবং সংযোগের সক্ষমতা বাড়লে আমরাও সক্ষমতা বাড়াতে পারব।

বর্তমানে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের সদস্যরা একই সঙ্গে ২৩টি কল গ্রহণ করে পরামর্শ দিচ্ছেন। সার্বক্ষণিক তদারকির দায়িত্বে আছে একটি পর্যবেক্ষণ দল।

সূত্র – ইনডিপেনডেন্ট টিভি