বিলুপ্ত সংক্রামক রোগ ডিপথেরিয়া, ৪’শ ২৬ শনাক্ত

হ্যাপী আক্তার: বাংলাদেশে বিলুপ্ত সংক্রামক রোগ ডিপথেরিয়া। এখন সেই রোগের প্রকোপ বাড়ছে কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে। এখন পর্যন্ত ৪’শ ২৬ শনাক্ত করা হয়েছে জনকে আর মারা গেছে ৯ জন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রতিষেধক ব্যবহার না করায় রোহিঙ্গাদের মধ্যে এ রোগের প্রকোপ বাড়ার পাশাপাশি স্থানীয়দের মধ্যেও এরোগের প্রকোপ বাড়ারও আশঙ্কা করা হচ্ছে। সূত্র: ডিবিসি নিউজ

প্রায় দুই দশক আগে বাংলাদেশ থেকে বিলুপ্ত হয়েছে ছোঁয়াচে রোগ ডিপথেরিয়া। তবে কিছু দিন ধরেই এরোগের প্রকোপ বাড়ছে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে। জেলা সিভিল সার্জন তথ্য অনুযায়ী এক সপ্তাহে ডিপথেরিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪’শ ছাড়িয়েছে। টিকা না দেয়ায় মিয়ানমার থেকে আশা রোহিঙ্গাদের মধ্যে এই রোগের প্রকোপ বেশি বলে জানান সিভিল সার্জন।

কক্সবাজরের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আব্দুল সালাম বলেন, টিকার মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে ডিপথেরিয়া নির্মূল করা হয়েছে। তবে বর্তমানে আবার এই রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে রোহিঙ্গাদের মাধ্যমে।

চিকিৎসকদের মতে নতুন প্রজন্মের কাছে ডিপথেরিয়া অনেকটাই অপরিচিত। এর চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে অনেক তরুণ চিকিৎসক জানেন না তাই তাই সবমিলে স্থানীয়দের মধ্যে ডিপথেরিয়া রোগটি ছড়িয়ে পরতে ঝুঁকি উড়িয়ে দেয়া যায় না।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র কক্সবাজার চিকিৎসা দলের সদস্য ডা. শরিফুল হক বলেন, ডিপথেরিয়া রোগটি হাচ্ছি, কাশি ও সর্দির মাধ্যমে ছড়ায়। এজন্য আক্রান্ত ব্যক্তির আশেপাশে যে কয়জন থাকেন তাদের সবাই আক্রান্ত হবে।

লাখ লাখ রোহিঙ্গার বাস এখন উখিয়ার শরণার্থী ক্যাম্পে। যাদের অনেকে মিয়ানমার থেকে বহন করে এনেছে নানা রোগব্যাধি। সবশেষ মিলেছে ডিপথেরিয়ার অস্তিত্ব।

ডিপথেরিয়া শনাক্ত হওয়া রোগীর বাইরেও আক্রান্ত আরও অনেকে থাকতে পারে বলে আশংকা সংশ্লিষ্টদের। তবে, এই ব্যাধি ঠেকাতে ইতোমধ্যে টিকা দেয়া শুরু করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি ক্যাম্পে আনাগোনা রয়েছে এমন এলাকার মানুষদেরও দেয়া হচ্ছে টিকা।