এবার অ্যাশেজে ডিআরএস বিতর্ক

স্পাের্টস ডেস্ক : স্পট ফিক্সিংয়ের পর অ্যাশেজ সিরিজে এবার শুরু হয়েছে ডিআরএস বিতর্ক। বৃহস্পতিবারই ছিল অ্যাশেজ সিরিজের তৃতীয় টেস্টের প্রথম দিন। পার্থে টস জিতে ব্যাটিং নেয় ইংল্যান্ড। অভিজ্ঞ অ্যালেস্টার কুক ব্যাক্তিগত ৭ রানে সাজঘরে ফিরে গেলে অজি বোলিং আক্রমণের সামনে দুরন্ত লড়াইয়ে ইংল্যান্ডকে ম্যাচ ফেরান তরুণ স্টোনম্যান।

হ্যালেজউড-স্টার্কের সাঁড়াশি বোলিং আক্রমণের সামলে বাঁ-হাতি স্টোনম্যানের সংগ্রহ ৫৬। চা পান বিরতির আগে স্টার্কের বলে আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। আর এই আউট নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম।

স্টার্কের বিষাক্ত বাউন্সার সামলাতে না পেরে ব্যাট নামিয়ে ডাক করেন স্টোনম্যান। ব্যাটসম্যানকে টপকে সেই বাউন্সার জমা পড়ে অজি উইকেটকিপার টিম পেনের হাতে। এরপরই আউটের জন্য আপিল করে অস্ট্রেলিয়া। অনফিল্ড আম্পায়ার মরিস এরাসমাস স্টোনম্যানকে নক-আউট দেয়।
এরপরই ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের সাহায্য চান অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। পরে তৃতীয় আম্পায়ার ব্রিটিশ ব্যাটসম্যানকে আউট দেন।

যদিও ব্যাট বা দস্তানার সঙ্গে বলের কোনও সংযোগ ধরা পড়েনি হটস্পটে। অন্যদিকে আবার স্নিকোমিটারে মুভমেন্ট ধরা পড়েছে। সেই মুভমেন্ট আবার দস্তানা বল লাগার ফলেই তৈরি হয়েছে কিনা তাও স্পষ্ট নয়। এরপরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে যথেষ্ট প্রমাণ না থাকা সত্ত্বেও অনফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত কে কীভাবে পাল্টে ফেলতে পারেন থার্ড আম্পায়ার।

আউট হওয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেনি ব্রিটিশ টিম ম্যানেজমেন্ট। থার্ড আম্পায়ার টিভি ক্যামেরাতে আউট দেওয়ার পরই ড্রেসিংরুমের দরজার হাত ঠুঁকে নিজের হতাশা প্রকাশ করেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট।
প্রথম দিনের শেষে চার উইকেট হারিয়ে ইংল্যান্ডের স্কোর ৩০৫ রান। শতরান হাঁকিয়ে ক্রিজে রয়েছেন ডেভিড মালান।

এদিকে শতরান থেকে ২৫ রান দূরে ব্যাটিং করছেন জনি বেয়ারস্টো। দু’জনের জুটিতে এসেছে ১৭৪। অজিদের হয়ে দুটি উইকেট স্টার্কের ও একটি করে উইকেট পেয়েছেন হ্যাজেলউড ও কামিন্স।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার থেকেই শুরু হওয়া অ্যাশেজ সিরিজের তৃতীয় টেস্টে স্পট ফিক্সিংয়ের ছায়া দেখছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম।

ইংল্যান্ডের জয়প্রিয় সংবাদপত্র সান দাবি করেছে, মোট দু’জন বুকি বিশাল অঙ্কের বিনিময়ে পার্থ টেস্টে স্পট ফিক্সিং সংক্রান্ত সমস্ত গোপান নতি তাদের বিক্রি করতে চেয়েছে। যদিও এই দাবিকে একেবারে গুরুত্ব নিতে নারাজ আইসিসি। -ক্রিকইনফাে