ট্রেনে ও বাসে কীভাবে নামায আদায় করতে হবে?

উত্তর : ট্রেন নির্মাণগতভাবে এ ধরনের যে, তাতে কিবলামুখী হওয়া সম্ভব। যদি নামাযের মধ্যে ট্রেন ঘুরে যায় তাহলে কিবলা ঠিক করে নেওয়াও সম্ভব। এজন্য ট্রেনে ফরজ নামাজ শুরুতে এবং মধ্যবর্তী সময়েও কিবলামুখী হওয়া জরুরী। যদি কিবলামুখী হয়ে নামাজ শুরু করার পর মাঝখানে ট্রেন বা বাস দিক পরিবর্তন তাহলে নামাজীর দিকও পরিবর্তন করতে হবে। আর বাস এভাবে তৈরি করা যে, তা যদি কিবলামুখী হওয় না চলে তাহলে কিবলামুখী হওয়া সম্ভব নয়। এমতাবস্থায় যদি বাস থেমে থাকে তবে নিচে নামাজ পড়তে হবে। আর যদি চলমান অবস্থায় থাকে, যদি আরোহী ব্যক্তি বাস থামাতে সক্ষম হয় তখন নেমে কিবলামুখী হয়ে আদায় করবে। আর সক্ষম না হলে তবে কিবলামুখী হওয়া ব্যতীতও নামায আদায় করা যেতে পারে। সংগ্রহ : সাঈদুর রহমান