শহীদ বুদ্ধিজীবীর প্রতি আমরা গভীর শ্রদ্ধা জানাই (ভিডিও)

ওয়ালি উল্লাহ সিরাজ: আজ ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছিল গণহারে। আজকের এই দিনটি বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক বেদনাঘন, মর্মন্তুদ স্মৃতিবাহী দিন। এই দিন সম্পর্কে নুতন করে কিছু বলার নেই। যাদেরকে এই দিবসে হত্যা করা হয়েছিলো তাদের স্মৃতির প্রতি আমরা গভীরভাবে শ্রদ্ধা জানাই। একটি দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি হলে কিংবা অন্য কোন ক্ষতি হলে সেটা খুব সহজেই কাটিয়ে উঠা যায়। কিন্তু বুদ্ধিবৃত্তিক ক্ষতি হলে সেটা কাটিয়ে উঠা সম্ভব নয়। পাকিস্তানীরা এটাই করতে চেয়েছিলো।

বুধবার দিবাগত রাতে চ্যানেল আইয়ের আজকের সংবাদপাত্র অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন সাপ্তাহিকের সম্পাদক গোলাম মোর্তোজা।

তিনি আরো বলেন, এই বুদ্ধিজীবীদের হত্যার কারণে দেশ কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেটা আগে বুঝতে না পারলেও এখন বুঝতে পারছি। কেননা আমরা এখন এমন একটি সমাজে বাস করছি যেখানে সাহসী মানুষ নেই। নগরিক সমাজ বলতে কিছু নেই। আমরা এমন সমাজে বাস করছি যেখানে শিক্ষকদের কথা বলার কোন অধিকার নেই। সাংবাদিকরা কোন বিষয়ে শক্ত অবস্থান নিয়ে দাঁড়াতে পারে না এমনকি অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে না। আসলে ১৯৭১ সালে আমরা কত বড় ক্ষতির মুখোমুখি হয়েছিলাম সেটা বলে বুঝানো সম্ভব নয়।

গোলাম মোর্তোজা আরো বলেন, নিউইয়র্কে হামলাকারী আকায়েদ উল্লাহ একজন বাংলাদেশী। সে এই কাজটি করে বাংলাদেশকে একটি বিব্রতকত অবস্থায় ফেলে দিয়েছে। বিশ্বমিডিয়াতে তাকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। তবে এখানে একটি ভালো দিক হচ্ছে আমরা দ্রুত তদন্ত করে বলতে পেরেছি যে, আকায়েদ উল্লাহ যখন বাংলাদেশে ছিলো তখন সে কোন জঙ্গি গোষ্ঠি সাথে যুক্ত ছিলো না। অনেক নেগেটিভের মাঝে এটা একটি পজেটিভ বিষয়।