ভারত ৩৯২, রোহিত ২০৮
এবার লঙ্কার পালা

স্পোর্টস ডেস্ক: শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ভারত ব্যাট করতে নেমেছিল কিছুটা ব্যাকফুটে থেকেই। কারণ প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাটিং ব্যর্থতার কারণে লজ্জায় পড়েছিল দলটি। কিন্তু বুধবার মোহালিতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ব্যাটিংয়ে আরো অনন্য এক রেকর্ডই গড়লেন এই সিরিজে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। লঙ্কান বোলারদের চার-ছয়ের বন্যায় ভাসিয়ে দিয়ে তুলে নিলেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি। ১৫৩ বলে ২০৮ রান করে অপরাজিত থাকলেন রোহিত। তার এই ইনিংসেই ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৯২ রানের হিমালয়সম পর্বতে উঠল ভারত।

মোহালিতে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয়টিতে টসে জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত জয় পাওয়া শ্রীলঙ্কা। তবে নতুন অধিনায়ক থিসারা পেরেরার সিন্ধান্ত যে ঠিক হয়নি তাই প্রমাণ করেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।

ওয়ানডেতে প্রথম দল হিসেবে এদিন ১০০তম ৩০০ বার তার চেয়ে বেশি রানের স্কোর করলো ভারত। দ্বিতীয়স্থানে থাকা অস্ট্রেলিয়া ৯৬বার ৩০০ বা তার বেশি স্কোর করেছে।

এদিন ওপেনিং জুটিতে রোহিত ও শিখর ধাওয়ান জুটি ১১৫ রান তোলেন। চলতি বছর এ নিয়ে নয়টি ওপেনিং সেঞ্চুরি আসলো ভারতে। ধাওয়ান অবশ্য ৬৭ বলে নয়টি চারে ৬৮ করে বিদায় নেন। কিন্তু উইকেটে মারমুখি খেলে অবিচল থাকেন রোহিত।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে শ্রেয়াস আইয়ারের সঙ্গে ২১৩ রানের জুটি গড়েন রোহিত। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নামা তরুণ আইয়ার অল্পের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হন। ৭০ বলে নয়টি চার ও দুটি ছক্কায় ৮৮ করে ফেরেন তিনি।

কিন্তু উইকেট ছাড়েননি রোহিত। শেষ পর্যন্ত ১৫৩ বলে ১৩টি চার ও ১২টি বিশাল ছক্কায় ২০৮ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ২০০০ সালের পর কোনো ভারতীয় ওপেনার হিসেবে এক বছর ওয়ানডেতে ছয়টি বা তার বেশি সেঞ্চুরির কীর্তি গড়লেন রোতিত।১১১১

ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে আর কোনো ব্যাটসম্যান একটি ডাবল সেঞ্চুরির বেশি করতে পারেননি। সেখানে রোহিত একাই করেছেন তিনটি। এর আগে ২০১৩ সালে সর্বপ্রথম অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাঙ্গালুরুতে ২০৯ রান করেছিলেন। আর ২০১৪ সালে কলকাতায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২৬৪ রান করেছিলেন, যা আবার ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস। বাকিরা মিলে চারটি ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন।