চুলের আগা ফাটা রোধ করার ঘরোয়া উপায়

নাসরিন বৃষ্টি: চুলের অযত্ন, হেয়ার ড্রায়ারের অতিরিক্ত ব্যবহার, রোদ ও ধুলাবালির কারণে আগা ফাটতে পারে। আগা ফাটা চুল, হারিয়ে ফেলে জৌলুস। এছাড়া ভেঙে যাওয়া চুল বাড়তেও চায় না সহজে। ফলে বিবর্ণ হয়ে চুল ঝরে পড়তে শুরু করে। চুলের আগা একবার ফেটে গেলে, তা স্বাভাবিক রূপে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয় না। তাই চুলের যে অংশটুকু ফেটে গেছে সেই অংশ কেটে ফেলতে হয়। পাশাপাশি আগা ফাটা রোধ করতে চুলের যত্ন নিতে পারেন ঘরোয়া উপায়ে।

চুলের অাগা ফাটা রোধ করার কিছু ঘরোয়া উপায়:

* নারিকেল তেল: চুলের আগা ফাটার সবচেয়ে কার্যকর সমাধান হলো তেল। তেল চুলে পুষ্টির জোগান দেয়। তাই নিয়মিত চুলে তেল দিতে হবে। এক্ষেত্রে আমরা সবাই সাধারণত নারিকেল তেল ব্যবহার করে থাকি। এছাড়াও জলপাই তেল, বাদাম তেল বা তিলের তেল ব্যবহার করা যায়।

* ডিমের কুসুম: প্রোটিন ও ভিটামিন এ রয়েছে ডিমের কুসুমে। চুলের আগা ফাটা রোধ করতে ডিমের কুসুম ব্যবহার করতে পারেন চুলে। মিশ্রণটি চুলের আগায় লাগিয়ে রাখুন। ৪০ মিনিট পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন চুল।

* আমন্ড অয়েল: আমন্ড তেল চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত লাগিয়ে রাখুন ১ ঘণ্টা। ভেষজ শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল।

* কলা: প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট রয়েছে কলায়। ফেটে যাওয়া চুলের যত্নে তাই কলা ব্যবহার করতে পারেন। একটি পাকা কলা চটকে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মেশান। মিশ্রণটি মাথার ত্বকের পাশাপাশি চুলের আগায় লাগান। ১ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

* অলিভ অয়েল: অলিভ অয়েলে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট চুলের আগা ফাটা রোধ করতে সাহায্য করে। রাতে ঘুমানোর আগে অলিভ অয়েল ভালো করে ঘষে ঘষে লাগান। চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত লাগাবেন। পরদিন সকালে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

* ছয় মাস অন্তর অন্তর চুল কাটা: চুলের আগা ফাটা রোধ করার জন্য ছয় মাস অন্তর অন্তর চুল কাটতে হবে।