বদলে যাচ্ছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

ডেস্ক রিপোর্ট : নতুন নতুন প্রকল্পে বদলে যাচ্ছে স্বাধীনতার সাক্ষ্য বহন করা ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। দুই ধাপে প্রকল্প বাস্তবায়নের পর এবার পূর্ণাঙ্গ কাজ শেষ করতে তৃতীয় পর্যায়ের প্রকল্প গ্রহণ করেছে সরকার।

এ প্রকল্পের আওতায় উদ্যানে বসবে ৭ মার্চের জনসভামঞ্চের রেপ্লিকা। থাকবে মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানি বাহিনীর আত্মসমর্পণ দলিল স্বাক্ষরের নিদর্শন সেই টেবিল। জনসভার জন্য নির্মিত হবে স্থায়ী মঞ্চ। পরিকল্পনা অনুসারে, উদ্যানের একটি নির্দিষ্ট স্থানে যাতে জনসভা করা যায় সেজন্য পাকা বেদি তৈরি করা হবে। ৭ মার্চে যে জায়গায় বঙ্গবন্ধুর জনসভা হয়েছে সেখানেই এ বেদি নির্মাণ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া ঐতিহাসিক এই উদ্যানের সব স্মৃতি সংরক্ষণের পাশাপাশি একে দেশি-বিদেশি পর্যটকের কাছে আরও আকর্ষণীয় করে গড়ে তোলা হবে। জানা গেছে, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঘিরে সরকার এরই মধ্যে দুই পর্যায়ের বৃহৎ প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করেছে। কয়েক দিন আগে স্বাধীনতাস্তম্ভ নির্মাণ শীর্ষক তৃতীয় পর্যায়ের প্রকল্পও হাতে নেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ২৩৮ কোটি টাকা।

২০১৯ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, গ্লাস টাওয়ারের চারপাশে নতুন করে ঘাস রোপণ করে বৃত্ত গড়ে দেওয়া হবে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সঙ্গে একীভূত হবে শিশু পার্ক। শুধু তাই নয়, নতুন রাইড বসিয়ে পার্কটি দর্শনার্থীদের কাছে আকর্ষণীয় করে গড়ে তোলা হবে। পার্কের নিচে থাকবে পার্কিং। পার্ক ও উদ্যান মিলিয়ে নির্মিত হবে পাঁচটি ফুড কোর্ট।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন