হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করায় মুসলিম যুবককে পুড়িয়ে হত্যা (ভিডিও)

মাছুম বিল্লাহ: প্রেম করে হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করায় এক বাঙালী মুসলিম যুবককে নির্মমভাবে কুপিয়ে ও পরে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে।

কথিত ‘লাভ জেহাদের’ অভিযোগে হত্যার ভিডিও ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে। বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মালদা জেলার বাসিন্দা মুহাম্মদ আফরাজুল ইসলাম দেশটির রাজস্থানে রাজসমন্দ জেলায় শ্রমিকের কাজ করতো, বৃহস্পতিবার সেখানেই এ ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজস্থানের রাজসমন্দে জংলি রাস্তায় আফরাজুলের অর্ধদগ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে জানাগেছে, ওই লাশটি আফরাজুল (৪৫) নামে এক শ্রমিকের। গত কয়েক দিন ধরেই তিনি নিঁখোজ ছিলেন।

পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতের প্রভাবশালী হিন্দি দৈনিক জাগরণের এক খবরে বলা হয়েছে, গত কয়েক বছর আগে কাজের জন্য রাজস্থান বসবাস করছিলেন। সেখানে এক হিন্দু মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক এবং পরে তাকে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করেন আফরাজুল। এ কারণেই তাকে হত্যা করা হয়েছে।

পত্রিকাটি জানায়, আফরাজুলকে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে, তা দেখে শিউরে উঠতে হয়। তাকে হত্যার সময় পুরো দৃশ্যটি ভিডিও করা হয়েছে। ওই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই তৎপর হয়েছে রাজস্থান প্রশাসন। ভিডিওটি আর যাতে না ছড়ায়, সে জন্য রাজসমন্দ জেলা জুড়ে সাময়িক ভাবে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে। রাজস্থানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গুলাবচন্দ কাটারিয়া বলেছেন, ‘এক জনকে খুন করে তার ভিডিও বানানো হচ্ছে! অবিশ্বাস্য! ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে বিশেষ তদন্তকারী (সিট) দলও।’

ভাইরাল ওই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, চার দিকে গাছপালা। তার মধ্যেই একফালি রাস্তা। সেখানে এক যুবক দাঁড়িয়ে রয়েছে। তার পরনে লাল জামা। সাদা প্যান্ট। গলায় জড়ানো সাদা মাফলার। গাল জুড়ে হাল্কা দাড়ি। যুবকটির ডান হাতে ধরা চপার। তাই নিয়ে সে এগোচ্ছে কাছেই মাটিতে পড়ে থাকা এক ব্যক্তির দিকে। এর পর সেই চপার দিয়ে সে একাধিক বার কোপাতে থাকে সেই মানুষটিকে। তার পর তাঁর শরীরে সে ঢেলে দেয় কেরোসিন। এ বার তাতে ঠুকে দেওয়া হয় আগুন। ওই ভিডিওতে লাল জামার যুবককে উগ্র কথা বলতেও শোনা গিয়েছে। সেখানে তার দাবি, এই ঘটনা ‘লাভ জিহাদে’র ফল।

জানা গিয়েছে, আটকের নাম শম্ভু লাল রেগর। গোটা ঘটনাটি সে আবার নিজের মোবাইলে ক্যামেরাবন্দি করে। ক্যামেরার সামনে সে জানায়, ‘লাভ জিহাদে যে নিজেকে জড়াবে তার পরিণতি হবে এই। ’

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় সে নিজেই পোষ্ট করে। মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিও। এক যুবকের নৃশংসতায় হতবাক বনে যান সবাই।

এ ঘটনায় ভারতজুড়ে নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এর সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।