এলিমিনেটর পর্বে শুক্রবার রংপুর ও খুলনা মুখোমুখি

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিপিএল শুরুর পর থেকেই ধারাবাহিক খেলছে খুলনা টাইটান্স। একটা সময় পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই ছিল তারা। কিন্তু শেষ দিকে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও রংপুর রাইডার্সের কাছে টানা দুটি ম্যাচ হেরে শেষ পর্যন্ত তৃতীয় স্থান নিয়েই সন্তুষ্ট হতে হয় খুলনা টাইটান্সকে। ফলে এলিমিনেটর রাউন্ডই খেলতে হচ্ছে দলটিকে।

কোয়ালিফায়ারে খেলার লক্ষ্যে মিরপুর স্টেডিয়ামে শুক্রবার খুলনা টাইটান্স ও মাশরাফি বিন মুর্তজার রংপুর রাইডার্স মোকাবিলা করকেব। দুপুর ২টায় খেলা শুরু হবে। টানা তিনটি ম্যাচ হেরে শেষ চারই অনেকটা অনিশ্চিত ছিল রংপুরের। পরে ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককালামের মতো খেলোয়াড়ের উপস্থিতিতে প্রাণ ফিরে পায় দলটি। শনিবার কোয়ালিফায়ারে মোকাবিলা করবে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দুই দল ঢাকা ডায়নামাইটস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স পরস্পরের মোকাবিলা করবে।

এবারের আসরে বেশ শক্তিশালী দলই গড়েছে রংপুর। তবে সে অনুযায়ী মাঠে পারফর্ম করতে ব্যর্থ। ধারাবাহিকতার অভাব খুব চোখে পড়েছে। গেইল দুটি ম্যাচে জয় এনে দিলেও এখনও বলার মতো রান করতে পারেননি ম্যাককালাম। তবে দারুণ খেলছেন দলের উইকেটরক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন। জাতীয় দল থেকে ছিটকে পড়া এই তারকাই বেশ কয়েকটি ম্যাচে জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছেন।

রংপুর যেমন তাকিয়ে নেতা মাশরাফির দিকে, তেমন খুলনাও তাকিয়ে থাকবে অধিনায়কের দিকে। মাঝারী সারির এ দলটি গত আসরের মতো এবারও মাহমুদউল্লাহ নির্ভর। তবে দারুণ খেলছেন আরিফুল হকও। ২৫ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান প্রতিটি ম্যাচেই দারুণ ফিনিশিং দিচ্ছেন।

তবে দুই দলই চিন্তিত উইকেট নিয়ে। এমন অসমান বাউন্সের উইকেটে ব্যাটসম্যানদের রান করাই কঠিন। খুলনার বোলিং কোচ আলফানসো থমাসও বললেন, এই উইকেটে ব্যাটিং করা সত্যিই ব্যাটসম্যানদের জন্য চ্যালেঞ্জিং। কারণ মিরপুরের উইকেট সেøা এবং এখানে বল হুটহাট ওঠানামা করে। তবে তারপরও এ উইকেটে মানিয়ে নিয়েই ভালো কিছু করতে চায় দলটি, ব্যাটসম্যাদের মানিয়েই নিয়েই খেলতে হবে।
উইকেট নিয়ে দুশ্চিন্তাটা বেশি রংপুরের জন্যই। কারণ দলটি বেশি নির্ভর বিদেশি ব্যাটসম্যানদের উপর। ম্যাককালাম-গেইলরা এমন উইকেটে বেশ সংগ্রাম করছেন। আগের দিন তো উইকেটকে বাজেই বলেছেন ম্যাককালাম।