নিখোঁজদের খুঁজে বের করার দায় এড়াতে পারে না রাষ্ট্র : এলিনা খান

জান্নাতুল ফেরদৌসী :  গত ৫ পাঁচ মাসে কেবল রাজধানী থেকেই নিরুদ্দেশ হয়েছে ১৪ জন। এদের মধ্যে ৪ জন ফিরলেও এখনো বাকিদের কোন খবর নেই।

এসব বিষয়ে মানবাধিকারকর্মী বিশিষ্ট এলিনা খান বলেছেন, নিখোঁজ ব্যক্তিদের খুঁজেবের করতে না পারার দায় রাষ্ট্র এড়াতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, সাধারণ কোনো কারণে কেউ যদি নিখোঁজ হতো তাহলে নিশ্চিত তারা মুখ খুলতো। তারা মামলা করতো। কিন্তু নিখোঁজ হবার পর যারা ফিরে আসছে তারা কিন্তু কোন কথা বলছে না। এখানে এমন কিছু ঘটনা আছে যে তাদেরকে নিষেধ করা হচ্ছে যাতে মুখ খোলা না হয়। সেই ক্ষেত্রে রাষ্ট্রকেই দায়িত্ব নিতে হবে নিখোঁজ ব্যক্তিদের খোঁজে নিয়ে আসা। এভাবে নিখোঁজ অপহরণ বেড়ে যাওয়ায় জনগণের নিরাপত্তার জন্য হুমকি।  সূত্র: চ্যানেল২৪টিভি

নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মোবাশ্বার হাসানের মায়ের অপেক্ষা শেষ না হতেই নিখোঁজের তালিকায় যুক্ত হয় সাবেক রাষ্ট্রদূত মারুফ জামানের নাম। ক্যামেরার সামনে কথা না বললেও এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তার পরিবার থেকে জানানো হয় গত সোমবার ধানমন্ডি বাসা থেকে বিদেশ ফেরত তার ছোট মেয়েকে আনতে বিমান বন্দরের উদ্দেশ্যে বের হয় মারুফ জামান। সন্ধ্যায় অজ্ঞাত নাম্বার থেকে ফোন করে তিনি জানান, তার কম্পিউটারটি নিতে একজন বাসায় যাবেন। এর কিছুক্ষণ পর অজ্ঞাত ৩ ব্যক্তি বাসায় ঢুকে তার ঘর তল্লাশি করেন, বের হওয়ার সময় সঙ্গে নিয়ে যায় কম্পিউটার, সিপিইউ, ক্যামেরা ও একটি স্মার্টফোন। এরপর আর খোঁজ নেই মারুফ জামানের।

পরে বাবার নিখোঁজের কথা জানিয়ে ধানমন্ডি থানায় সাধারণ ডাইরি করেন তার মেয়ে। পরদিন পূর্বাচলে পরিতক্ত অবস্থায় তার গাড়িটি উদ্ধার করে পুলিশ।

কাউন্টার টেররিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, থানায় ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে আমরাও তদন্ত করবো গুরুত্বের সাথে।

এদিকে সাবেক রাষ্ট্রদূত মারুফ জামানকে খুজতে সরকারি সহযোগিতা চেয়েছেন তার পরিবার।