৪৬ বছরে গণতন্ত্র কতটুকু কায়েম করতে পেরেছি তা নিয়ে অনেক প্রশ্ন আছে : আমানুল্লাহ কবীর

সাগর গনি : গণতন্ত্রকে কেন্দ্র করেই মূলত আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম শুরু হয়েছিল। পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন হয়। সেই গণতন্ত্র বাংলাদেশে বর্তমানে কতটুকু কার্যকর, আমরা কি ৪৬ বছরে দেশে গণতন্ত্র কায়েম করতে পেরেছি? প্রশ্নগুলো এখন সবার মনে বিরাজমানÑ আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন সিনিয়র সাংবাদিক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক আমানুল্লাহ কবীর।তিনি বলেন, একটি স্বাধীন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের চারটি স্তম্ভ থাকে। সংসদ হচ্ছে তার একটি। আমাদের জাতীয় সংসদের বর্তমান অবস্থা কী? সংসদে দৃশ্যমান কোনো বিরোধী দল নেই।

বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচন অর্থাৎ ২০১৪ সালের নির্বাচন এখনো একটি প্রশ্নবিদ্ধ ও একতরফা নির্বাচন হিসেবে চিহ্নিত। বেশিরভাগ প্রার্থী বিনা ভোটে, ঘোষণা দেওয়ার মাধ্যমে নির্বাচিত করা হয়েছিল। এই হচ্ছে আমাদের দেশের গণতন্ত্রের অবস্থা।তিনি আরও বলেন, একটি গণতান্ত্রিক দেশের রাজনৈতিক দলের যে স্বাধীনতা থাকা উচিত, বাংলাদেশে ক্ষমতাসীন দল ছাড়া সেই স্বাধীনতা আর কোনো রাজনৈতিক দলের নেই। দেশের রাজনৈতিক দলগুলো কোনো মিটিং-মিছিল সমাবেশ করতে পারে না। যা কিছু করতে হয় ঘরের ভেতরেই করতে হয় আর যদি সরকার মেহেরবানি করে অনুমতি দেয় তাহলে তারা বাইরে কোনো একটা মিটিং করতে পারে। দেড় বছর পর একটা সমাবেশ করতে পেরেছে বিএনপি। এগুলো কোনো স্বাধীন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের নিয়ম হতে পারে না।

আমাদের দেশের পার্লামেন্ট নির্বাচন কিভাবে হবে সেটার কোনো সমাধান এখনো পর্যন্ত আমরা করতে পারিনি। অর্থাৎ এই নির্বাচনটা কি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে হবে, নাকি ক্ষমতাসীন সরকারের নিয়ন্ত্রণে হবে সে বিষয়ের কোনো সুরাহা করতে পারিনি। এটা এখনো বিতর্কিত অবস্থায় রয়ে গেছে। দেশে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি হয়েছিল, কিন্তু বতমানে দেশে বিরাজমান কোনো কিছুই আর জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে হচ্ছে না।এক প্রশ্নের জবাবে আমানুল্লাহ কবীর বলেন, বিচারবিভাগের দিকে যদি লক্ষ্য করি সেখানেও একই অবস্থা বিদ্যমান। কয়েকদিন আগে দেশের প্রধান বিচারপতিকে যেভাবে অপসারণ করা হলো, একটি রাষ্ট্রের প্রধান বিচারপতিকে যদি এভাবে অপসারণ করা হয় তাহলে দেশের বিচারবিভাগের কি অবস্থা হতে পারে! বিচার বিভাগের ওপর দেশের মানুষের যে আস্থা ছিল সেই জায়গাটা নষ্ট হয়ে গেছে বলেও মনে করেন এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক

সম্পাদনা : আশিক রহমান