সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় ডিআরইউ’র নিন্দা ও উদ্বেগ

সুশান্ত সাহা : পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে হাইকোর্টের সামনে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি’র (ডিআরইউ) কার্যনির্বাহী কমিটির নবনির্বাচিত সদস্য মাহমুদা ডলি ও সংগঠনের স্থায়ী সদস্য রাশেদুল হকসহ ৪ জন সাংবাদিক পুলিশী নির্যাতন ও হয়রানির শিকার হয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আদালতে হাজিরার রিপোর্ট সংগ্রহের দায়িত্বে ছিলেন তারা। এ সময় পুলিশ তাদের দায়িত্ব পালন অবস্থায় টেনে হিচড়ে পুলিশের ভ্যানে তোলে। সেখানে অবস্থানরত অন্যান্য সাংবাদিকদের প্রতিবাদের মুখে পুলিশ তাদেরকে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ক্ষাভ প্রকাশ করছে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি।

এ ব্যাপারে ডিআরইউ’র সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা ও সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী বিবৃতিতে বলেছেন, পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে যেয়ে সাংবাদিক হয়রানি ও নির্যাতনের ঘটনা স্বাধীন গণমাধ্যমের পরিপন্থী। ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব পালন থেকে বিরত রাখা যাবে না। বরং কতিপয় পুলিশ সদস্যর এধররনের আচরণের কারণে সাংবাদিকদের সাথে পুলিশের দুরত্ব আরও বাড়বে। ডিআরইউ নেতৃবৃন্দ অনতিবিলম্বে ঘটনার সাথে জড়িত দায়ী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানান।