দেশি ও বিদেশিদের স্বার্থ রক্ষা করতে রামপাল দেশবিনাশী প্রকল্প করা হচ্ছে : আনু মুহাম্মদ

রফিক আহমেদ : তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেছন, ভারত-চীন-রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্র’র বিভিন্ন কোম্পানি ও দেশি ও বিদেশি কিছু ভাগীদারদের স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে রামপাল, রূপপুরের মতো দেশবিনাশী প্রকল্প করা হচ্ছে। মঙ্গলবার সকালে জাতীয় কমিটির উদ্যোগে গ্রীনরোডের জাহানারা গার্ডেনে আলোচনা সভা তিনি এ কথা বলেন।

বিদ্যুৎ সংকট সমাধানের নামে সরকারের গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি পর্যালোচনা করে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, সরকারের মূল এজেন্ডা বিদ্যুৎ সংকটের সমাধান নয় বরং দেশি-বিদেশি কিছু গোষ্ঠির বিপুল মুনাফা নিশ্চিত করাই সরকারের লক্ষ্য। বিদ্যুৎ সংকট সমাধানের জন্য এর চাইতে অনেক সুলভ ও নিরাপদ পরিবেশ বান্ধব পথ যে আছে তা জাতীয় কমিটির প্রস্তাবনায় স্পষ্ট করা হয়েছে।

সভায় জাতীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ফ ম মাহবুবুল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তারা বলেন, আ ফ ম মাহবুবুল হক সা¤্রাজ্যবাদ ও দেশীয় লুটেরাদের আধিপত্য থেকে মুক্তির জন্য আজীবন লড়াই করে গেছেন। এই লড়াই অব্যাহত রাখা আমাদের দায়িত্ব। বক্তারা গ্যাস বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির জন্য সরকারের পাঁয়তারার তীব্র নিন্দা করেন। তারা বরং তেল ও বিদ্যুতের দাম কমানোর তাগিদ দেন।

বক্তারা সরকারের দেশবিনাশী বিভিন্ন প্রকল্পের বিপরীতে জাতীয় কমিটির প্রস্তাবিত মহাপরিকল্পনার খসড়া নিয়ে দেশব্যাপী আলোচনা পর্যালোচনার মাধ্যমে অগ্রসর পরিবেশ বান্ধব নিরাপদ ও সুলভ পথে বিদ্যুৎ সংকট সমাধানের দাবিতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ’র সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- আবুল হাসান রুবেল, শওকত হোসেন আহমেদ, জুলফিকার আলী, মহিন উদ্দীন চৌধুরী লিটন, সামছুল আলম, নজরুল ইসলাম, মোফাজ্জল হোসেন মোস্তাক ও মিজানুর রহমান প্রমুখ।