সমঝোতায় না আসলে দেশ সংঘাতের দিকে যাবে

অধ্যাপক ড. দিলারা চৌধুরী : বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন করবেন না। ২০১৪ সালেও এমন একটা ঘটনা আমরা দেখেছি যে, বিএনপি শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন করেনি। ওই একই ঘটনা আবার হতে পারে, যদি রাজনৈতিক বিষয়ে সমঝোতা না হয়। শেখ হাসিনা প্রায় দশ বছর ধরে ক্ষমতায় আছেন, দশ বছর কম সময় নয়। এখন পর্যন্ত দেশ আগের অবস্থানেই আছে। কোনো পরিবর্তন আসেনি। কোনো রকম সমঝোতার লক্ষণ তাদের ভিতরে দেখা যায় না। এটা দেশের জন্য অত্যন্ত নেতিবাচক। আর এই সংকট দূর না হলে বাংলাদেশে যতই ফ্লাইওভার, ব্রীজ, রোড-ঘাট করা হোক না কেন, কোনো লাভ হবে না। এগুলো কোনো হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট নয়। আমাদের সমাজে এখন মানসিকভাবে কোনো শান্তি নেই। নৈতিকতাবোধ, মূল্যবোধ কিছুই নেই। মানসিক শান্তি শুধু, ফ্লাইওভার বা টাকা-পয়সা দিয়ে হয় না। সবচেয়ে বেশি যেটা দরকার সেটা হচ্ছে নিরাপত্তা । নিরাপত্তা না থাকলে তো একটা মানুষ কোনো মতে শান্তিতে থাকতে পারে না। শান্তিতে না থাকতে পারলে আপনি যতই ব্রিজ তৈরী করেন কোনো কাজ হবে না। জনগণ চায় নিরাপত্তা। আর আমাদের দেশে যে রাজনৈতিক সমস্যাগুলো বাড়ছে, এগুলো সমাধান না করলে সমাজে অস্থিরতা বিরাজ করতেই থাকবে। এখন দুই দলেরই সমঝোতায় আসতে হবে, সেক্রিফাইস করতে হবে। না হলে কোনো মতে দেশে শান্তি আসবে না। দেশ একটা সংঘাতের দিকে যাবে। একটা সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচন এখন অত্যন্ত জরুরী। সেটা না হলে বাংলাদেশ আরও গভীর সংকটে প্রবেশ করবে। কারণ, এই সমস্যাগুলোর মধ্যে বিদেশী হস্তক্ষেপ আসবে। তাই আমাদের কাম্য হচ্ছে, বড় দলগুলোর সমঝোতা। তারা একে অন্যের কথা শুনবে। একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরী করবে। তাহলে জনগণের জন্য ভালো, হবে দেশের জন্যও ভালো হবে।
পরিচিতি : রাষ্ট্রবিজ্ঞানী
মতামত গ্রহণ : গাজী খায়রুল আলম
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ