অনিয়ম ঠেকাতে ডিজিটাল মনিটরিংয়ের আওতায় আসছে ৫ লাখ শিক্ষক

হামিম আহসান: আগামী জানুয়ারি থেকে ডিজিটাল মনিটরিংয়ের আওতায় আসছে স্কুল-কালেজের ৫ লাখ শিক্ষক। কোচিং বাণিজ্যসহ নানা অনিয়ম ঠেকাতে এ উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষামন্ত্রণালয়। এ প্রক্রিয়ায় একটি সফটওয়্যারের মাধ্যমে শিক্ষকদের বিভিন্ন দিক মিনিটরিং করবেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সূত্র- ইনডিপেন্ডেন্ট টিভি।

প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিতি, ঠিকমতো ক্লাস না নেয়া, কোচিং বাণিজ্যসহ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত অভিযোগ আসে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে। এছাড়া ফাইল আসা-যাওয়ার জটিলতায় এসব অভিযোগ তদন্তে দীর্ঘ সময় লাগে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এ দীর্ঘসূত্রতার কারণে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হয় না। এ অবস্থায় শিক্ষামন্ত্রণালয়ের পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদ্প্তর ‘পি আর ইন্সপেকশন’ নামে একটি সফটওয়ার তৈরি করছে।

এতে সারাদেশের সরকারি-বেসরকারি ৩৬ হাজার স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসার সব শিক্ষকের তথ্য থাকবে। একজন শিক্ষক কখন আসছেন, কি কি ক্লাস নিচ্ছেন এবং কয়টি প্রাইভেট পড়াচ্ছেন- সেসব যাবতীয় তথ্য থাকবে সফটওয়ারে।

কর্তৃপক্ষ বলছে, সফটওয়্যারের মাধ্যমে দ্রুত অভিযোগের তদন্ত সম্ভব হবে। বেতন-ভাতার স্বল্পতার কারণে শিক্ষকরা কোচিং করাতে বাধ্য হয় দাবি শিক্ষক সংগঠনগুলোর। শিক্ষাবিদরা বলছেন- শুধু মনিটরিং করলেই হবে না, নিতে হবে কঠোর ব্যবস্থা।

শিক্ষকরা সফটওয়ারে তথ্য দিচ্ছেন কি-না, তা খতিয়ে দেখতে একটি মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। এই সেল জেলা ও উপজেলা শিক্ষা অফিসের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করবে।