রোহিঙ্গা সঙ্কট
‘কত লাখ রোহিঙ্গা এসেছে আমরা কেউ সঠিক জানি না’(ভিডিও)

কে এম হোসাইন :  ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত বলেন, রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আনতে শক্তিশালী একটা চক্র কাজ করছে। তারা নানা ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে বাংলাদেশে পাড়ি দিতে বাধ্য করছে।

মিথিলা ফারজানা’র সঞ্চালনায় একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত অনুষ্ঠান একাত্তর জার্নালে তিনি একথা বলেন। এছাড়া ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক সর্ম্পক বিষয়ক অধ্যাপক ড. তারেক শামসুর রেহমান।

শ্যামল দত্ত বলেন,রাখাইন রাজ্য একবারে খালি করতে মিয়ানমারের একটা পরিকল্পনাতো আছেই। তাই তারা গণহত্যা চালিয়ে সব লোকগুলোকে বাংলাদেশে ঠেলে দেওয়া। আর তাদের আসার পেছনে সক্রিয় একটা দালাল চক্র কাজ করছে। তারা নানা ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে বাংলাদেশে পাড়ি দিতে বাধ্য করছে।

মিয়ানমার বলছে তারা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিবে। তারে উপর কোন গণহত্যা চালানো হচ্ছে না। তিন মাস পরেও কেন ¯্রােতের মত আবার রোহিঙ্গারা আসছে। তারা আসতে যতনা চাপ দিচ্ছে তার চেয়ে বেশি উৎসাহ দেখাচ্ছে আমাদের দেশ থেকে কিছু দালাল চক্র বাংলাদেশে চলে আসতে।

আমরা বলছি ছয় লাখ বা সাত লাখ এসেছে। কে গুনেছে। আগস্টের ২৫ তারিখ থেকে যে রোহিঙ্গা আসা শুরু করেছে। তার কোন হিসাব নেই। ক্যাম্পগুলো ছাড়া যারা তার বাইরে রোহিঙ্গাদের আগে আসা আত্মীয় আছে। তাদের সাথে মিশে গেছে। এগুলো কে গুনেছে। সুতরাং কত রোহিঙ্গা এসেছে আমরা নিজেরাও জানি না।