হিজাব নারীদের শান্তির ঠিকানা: পাক অভিনেত্রী

জাকারিয়া হারুন : প্রসিদ্ধ পাকিস্তানি অভিনেত্রী নুর বুখারি শোবিজ অঙ্গন ছেড়ে ধর্মের দিকে আসার ও হিজাব গ্রহণের কারণ বলেছেন। দুবাই এক সাক্ষাতকারে তিনি ধর্মের দিকে মনোবেশ করা ও হিজাব গ্রহণের কারণ বলেন। কিছুদিন পূর্বে তিনি শোবিজ অঙ্গন ছেড়ে ধর্মের দিকে ফিরে আসায় স্যোশাল মিডিয়ায় হইচই পরে।

মিডিয়াপাড়া ও তার ভক্তগণ তার এ পরিবর্তনের কারণ জানার জন্য ব্যাকুল ছিলেন। তিনি ধর্মের দিকে ফিরে আসার কারণ বলে দেন। চৌদ্দ বছর বয়সে ‘আমি চাই চাঁদ’ চলচিত্রের মাধ্যমে অভিনয় জগতে তার ক্যারিয়ার শুরু হয়। দুবাই এক সাক্ষাতকারে ধর্মের দিকে মনোবেশ করা ও হিজাব গ্রহণের কারণ বলেন, প্রত্যেক কাজ মহান আল্লাহর ইচ্ছা অনুযায়ি হয়। আমার বিয়ে বিচ্ছেদের পর অত্যন্ত খারাপ সময় অতিবাহিত করি। সে সময়টা আমার জন্য খুব সঙ্কটময় ছিল। আমি বুঝতে ছিলাম না কি করব? যখন কোন বিষয় খুব বেশি খারাপ হওয়া শুরু হয়, তখন আর মাথা কোন কাজ করে না। সে সময় আমি ধর্মের দিকে ঝুকে পরি।

নুর বুখারি তার বিয়ে বিচ্ছেদ সম্পর্কে বলেন, বিয়ে বিচ্ছেদের পর আমি সম্পূর্ণরূপে ভেঙ্গে পরি। স্বামী থেকে বিচ্ছেদের পর আমার জীবনের সবচেয়ে খারাপ সময় কাটে। একাকিত্ব আমাকে ভীষণ পীড়া দিত। এ সময় এক নারী মুরশিদের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। তার পরামর্শে আমি ইবাদত করা শুরু করি। এরপর আমার জীবনের সমস্যাগুলি কমতে থাকে। আর বিয়ে বিচ্ছেদের কষ্টগুলো ঘুচে যায়।

তিনি আরও বলেন, আমাকে হিজাব পরতে কেউ বাধ্য করেনি। বরং পবিত্র রমজান মাস থেকে আমি হিজাব পরা শুরু করেছি। তারপর আর হিজাব ছাড়িনি। হিজাব পরার পূর্বে আমার কিছু সঙ্কোচ ছিল। কিন্তু হিজাব পরা শুরু করার পর আমার জীবনে শান্তি নেমে আসে। আমার অভিজ্ঞতা জীবনের শান্তি ধর্মের নিয়ম অনুযায়ি চলা ও নারীদের হিজাব পরার মাঝেই। ধর্মের দিকে ফিরে এসে আমার জীবনের সঠিক অর্থ খুঁজে পেয়েছি।

সূত্র : ডেইলি পাকিস্তান উর্দু