নোট বাতিলের প্রথমবর্ষ পূর্তিকে ভারতে ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালিত

মুফতি আবদুল্লাহ তামিম : ভারতে কালো টাকা ঠেকাতে নরেন্দ্র মোদি ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় হঠাৎ করেই বাতিল করে দেন ৫০০ ও ১ হাজার টাকার নোট। এই সীদ্ধান্ত যারা মেনে নিতে পারেনি, এদিনে বিক্ষোভ করে কালো দিবস পালন করেছেন তারা।

এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কালো টাকার বিরুদ্ধে সরকারের পদক্ষেপে নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে প্রায় ২ লাখ ২৪ হাজার কোম্পানি। বরখাস্ত করা হয়েছে ৩ লাখ ৯ হাজার অধিক কর্মচারী কর্মকর্তাকে। ৫৮ হাজার অ্যাকাউন্টের খোঁজ মিলেছে যেখানে ১৭ হাজার কোটি টাকা জমা দেওয়ার পর মালিক তুলেও নিয়েছে সে টাকা।

নরেন্দ্র মোদি সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তকে ‘পাহাড়সম ভুল’ বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। তার আগে গতকাল মোদির রাজ্য গুজরাটের আহমেদাবাদে এক অনুষ্ঠান থেকে মোদি সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত এবং তড়িঘড়ি করে (জিএসটি) চালু করার বিরোধিতা করেছেন বিশিষ্ট এই অর্থনীতিবিদ। তার অভিমত, এ দুই সিদ্ধান্ত শুধুমাত্র ভারতের অর্থনীতিই নয়, দেশের গণতন্ত্রকেও বিপর্যয়ের মুখে ফেলে দিয়েছে।

মনমোহন বলেন, ‘দেশের ইতিহাসে ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর একটি কালো দিন। সরকারের নোট বাতিলের ফলে দেশের অর্থ ব্যবস্থা এখন সংকটের মুখে দাঁড়িয়েছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে ছোট ও মাঝারি শিল্পে। এ সিদ্ধান্তের ফলে দেশের আর্থিক বৃদ্ধির (জিডিপি) হার কমে গেছে। ফলে উৎপাদন কমেছে অনেক বেশি।’ আল-জাজিরা