আমরা না থাকলে আ.লীগ এক হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবে না : ইনু (ভিডিওসহ)

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেছেন, আপনারা ৮০ পয়সার মালিক, এক টাকার মালিক না। যতক্ষণ এক টাকা হবে না ততক্ষণ ক্ষমতা পাবেন না। আপনারা ৮০ পয়সা। এরশাদ, দিলীপ বড়ুয়া, মেনন এবং ইনু মিললে তবেই এক টাকা হবে। আমরা যদি না থাকি তাহলে আপনারা ৮০ পয়সা নিয়ে রাস্তায় ঘুরবেন। এক হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবেন না।

বুধবার বিকেলে কুষ্টিয়ার মিরপুর পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় ফুটবল মাঠে জাসদের এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ঐক্য করেছি জাতীর জন্য, দেশের জন্য, মানুষের জন্য। সেই ঐক্যের ফসল হিসেবে আজ শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী।

ইনু বলেন, জাসদ সন্ত্রাস, মারামারি চায় না, দলবাজি পছন্দ করে না। আমি শান্তি চাই বলে আপনারা এটাকে দুর্বলতা ভাববেন না। জাসদের লাঠি আছে, শক্তি আছে। আমরা যদি মনে করি- জাসদের লাঠি যে রাস্তায় যাবে সে রাস্তায় আর কেউ থাকবে না। আমি কিছু বলি না, জাসদের কর্মী ভাইয়েরা সহ্য করে।

তিনি বলেন, আমি আইনে বিশ্বাস করি। অন্য এমপিদের মতো ডিসি, এসপি, ইউএনও, ওসি আমদানি করি না। তারা আইন অনুযায়ী চলবেন। আমার কর্মীরা চোর-ডাকাত না।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের নেত্রী আর খালেদা জিয়া রাজাকারের নেত্রী। শেখ হাসিনা বাংলাদেশের, খালেদা জিয়া পাকিস্থানের, শেখ হাসিনা মানুষের, খালেদা জিয়া জঙ্গির। তাই আমি দেশের জন্য শেখ হাসিনার সঙ্গে ঐক্য করেছি। আগামী জাতীয় নির্বাচন ঐক্যবদ্ধভাবে হবে। জাসদ ঐক্যের মর্যাদা রাখবে। আপনারা পায়ে পা লাগিয়ে ঝগড়া করবেন না। জাসদের কাফেলা চলতেই থাকবে।

জাসদ সভাপতি বলেন, নির্বাচন নিয়ে যেমন বিতর্কের অবসান হওয়া উচিত তেমনি যুদ্ধাপরাধী ও তেঁতুল হুজুরদের নিয়ে যে বিতর্ক তারও অবসান হওয়া দরকার। বিএনপি নির্বাচন নিয়ে এতো প্রস্তাব দিচ্ছে অথচ রাজাকার, জঙ্গি, যুদ্ধাপরাধী ও তেঁতুল হুজুরদের ত্যাগ করার কোনো আলোচনায় আসছে না। নির্বাচন ও গণতন্ত্র নিয়ে আলোচনা করতে হলে বিএনপিকে যুদ্ধাপরাধী ও তেঁতুল হুজুরদের ত্যাগ করেই আলোচনায় আসতে হবে। তা না হলে বিএনপির সঙ্গে গণতন্ত্র ও নির্বাচন নিয়ে কোনো আলোচনা নয়।

মিরপুর উপজেলা জাসদের সভাপতি মহাম্মদ শরীফের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরিনা আক্তার এমপি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রোকনুজ্জামান রোকন, সাংগাঠনিক সম্পাদক মীর্জা আনোয়ারুল হক, আব্দুল আলীম স্বপন, দফতর সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীম কাইয়ূম, জনসংযোগ বিষয়ক সম্পাদক শরীফুল কবীর স্বপন, জাতীয় নারী জোটের সভাপতি আফরোজা হক রিনা, কেন্দ্রীয় জাসদ নেতা মহাম্মদ আবব্দুল্লাহ, জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসীন, মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলী প্রমুখ।