সরকারের পরিকল্পনারই গাড়িতে আগুন: খালেদা জিয়া

কিরণ সেখ: সরকারের বর্বরতম পরিকল্পনারই বোমা নিক্ষেপসহ দুুটি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে সন্ত্রাসীরা আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।

খালেদা জিয়া বলেন, আজও আমার গাড়ীবহর ঢাকা যাবার পথে ফেনী শহর অতিক্রম করার সময় পেট্রোল বোমা নিক্ষেপসহ দুুটি গাড়ীতে আগুন লাগিয়ে সন্ত্রাসী আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে, এটা সরকারের বর্বরতম পরিকল্পনারই অংশ।

পূনরায় আওয়ামী সন্ত্রাসীদের হামলাকে কাপুরুষোচিত আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কোন আধুনিক রাজনৈতিক দল নয়, এটি সন্ত্রাসীদের আখড়া। এরা সবসময় রক্ততৃষ্ণায় কাতর থাকে। এই দলটি দেশকে হত্যা, দখল, হাঙ্গামা, রক্তারক্তি ও খুনোখুনীতে ভরিয়ে দিতে চাচ্ছে। এই দলটির পরতে পরতে জড়িয়ে আছে মানবাত্মার অবমাননার বিভিন্ন দিক।

জনগণের হাড়গোড় চিবিয়ে আওয়ামী লীগ ভয়ঙ্কর নরপিশাচে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, এই পিশাচদের দোর্দন্ড পদচারণার প্রধান কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে ফেনী জেলাকে। ফেনী শহর এখন বিবেকবর্জিত সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্য- বলেন তিনি।

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের মানবিক বিপর্যয়ে সহায়তা দিতে বাধা দানের উদ্দেশ্যে তারা আমার গাড়ী বহরে চৈতন্যহীন বর্বর আক্রমণ চালাতে দ্বিধা করেনি। শুধু অসংখ্য গাড়ী কিংবা দলের নেতাকর্মীদেরকে আঘাত করা নয়, তারা দায়িত্বরত গণমাধ্যমে সাংবাদিকদের ওপরও নৃশংস আঘাত করেছে।

বেগম জিয়া আজ গাড়ীবহরে হামলার ঘটনায় জড়িত দুস্কৃতিদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আহবান জানান।