মার্কিন কানাডিয় পরিবারকে উদ্ধারে পাকিস্তানের প্রশংসা ট্রাম্পের

রাশিদ রিয়াজ : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১২ সালে আফগানিস্তানে সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত হওয়া মার্কিন-কানাডিয় পরিবারকে উদ্ধার করায় পাকিস্তানের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। পাকিস্তানের সেনাবাহিনী ও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা বৃহস্পতিবার মার্কিন নাগরিক কেইতল্যান কোলম্যান এবং তার স্ত্রী কানাডার নাগরিক জেসিয়া বোলিকে তাদের তিন সন্তানসহ সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। পাকিস্তানের জঙ্গি গোষ্ঠী হাক্কানি নেটওয়ার্ক যাদের সাথে তালেবানদের সম্পর্ক রয়েছে তাদের হাতেই এরা অপহৃত হন ২০১২ সালে।

ট্রাম্প অপহৃত দম্পতিকে উদ্ধারের প্রশংসা করে বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের সময় এসেছে। এই অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য মার্কিন-পাকিস্তান যৌথ প্রচেষ্টার এটি একটি বড় উদাহরণ। এটি দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের জন্যও ইতিবাচক। যুক্তরাষ্ট্রের ইচ্ছাকে পাকিস্তান সন্মান করছে এবং ওই অঞ্চলে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পাকিস্তানের সদিচ্ছা রয়েছে এ ঘটনা তারই প্রমাণ। পাকিস্তান পুনরায় যুক্তরাষ্ট্রকে সন্মান করতে শুরু করেছে।

ট্রাম্প বলেন, পাকিস্তানের এ ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি মনে করি অনেক রাষ্ট্রই যুক্তরাষ্ট্রকে ফের সন্মান করতে শুরু করবে। আমরা পাকিস্তানকে বিলিয়ন বিলিয়ন অর্থ সাহায্য করেছি সন্ত্রাস দূর করার জন্যে, কিন্তু দেশটি সে প্রচেষ্টার পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দিয়েছে যাদের বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করছি। এখন সে অবস্থানের অবশ্যই পরিবর্তন হতে হবে।

ট্রাম্প বলেন, পাকিস্তান এখন যুক্তরাষ্ট্রে ইচ্ছাকে স্বাগত জানিয়ে সন্মান করছে। দেশটিতে কিছু ঘটনা ঘটেছে যাতে আমাদের পূর্বে অসন্মান করা হয়েছে।

এদিকে উদ্ধারকৃত পরিবারটিকে খুব শীঘ্রই নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। ২০১২ সালে আফগানিস্তান থেকে নিজ দেশে যাওয়ার সময় তাদের অপহরণ করার পর ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে এক ভিডিও বার্তায় এই দম্পতি সরকারকে তাদের উদ্ধারের কথা বলেন।