‘হাজার বছর আরাকানে বাস/রোহিঙ্গাদের থ্যাঁতলানো লাশ’

রাশিদ রিয়াজ : মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও উগ্র বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের রোহিঙ্গা হত্যাযজ্ঞ নিয়ে যখন জাতিসংঘসহ সারাবিশ্বে নিন্দার ঝড় বইছে ঠিক তখনই ভারতের প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী কবীর সুমনের কণ্ঠ সোচ্চার হয়ে উঠল রোহিঙ্গাদের পক্ষে। তার গানে উঠে এসেছে মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমানদের যাদের সুকৌশলে ও পরিকল্পিতভাবে রাষ্ট্রহারা করেছে দেশটির সরকার।

এর আগেও কবীর সুমন শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চ থেকে ফেলানী হত্যার বিচার বাংলাদেশের বহু প্রসঙ্গ নিয়েই গান করেছেন। বাংলাদেশের সঙ্গে তার নাড়ির টান।

সুমন গাইলেন,
বর্মীবাহিনী নেমেছে মাঠে
রোহিঙ্গা জানে গলা কে কাটে
শান্তি পদ্মে কী-ভীষণ হুম
রোহিঙ্গা জানে রাত্রি নিঝুম।
মিডিয়া-ছবিতে অস্ত্র হাতে
গেরুয়াধারীরা অনেক রাতে
রোহিঙ্গাদের নিধনে শান্তি
বর্মীবাহিনী নধরকান্তি ।

হাজার বছর আরাকানে বাস
রোহিঙ্গাদের থ্যাঁতলানো লাশ
রোহিঙ্গা মেয়ে গর্ভে লাথি
শান্তির নামে ধর্ষণে মাতি।
এ হল মানুষ তীর্থফেরা
সবার ওপরে সত্য এরা
কারা রোহিঙ্গা কী যায় আসে
বসছে শকুন শিশুর লাশে।
স্বাগত শকুন তোমারই যোগ্য
আমরা মানুষ পোকার ভোগ্য
উপড়নো চোখ তোমাকেই দেব
শুনলে এ-গান রোহিঙ্গা ভেবো।