৫০শয্যা হাসপাতালের এক্স-রে মেশিন নষ্ট, সেবা বঞ্চিত রোগীরা

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল : ৫০শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা হাসপাতালের একমাত্র ডিজিটাল এক্স-রে মেশিনটি গত সাড়ে চার মাস পর্যন্ত নষ্ট হওয়ায় স্বল্প খরচে এক্স-রে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্ছিত হচ্ছেন সাধারণ রোগীরা। ঘটনাটি জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলা হাসপাতালের।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সরকারের সংশিষ্ট মন্ত্রনালয় থেকে রোগীদের স্বল্প খরচে এক্স-রে করার জন্য সম্প্রতি সময়ে হাসপাতালে ৩০০ এমএম অত্যাধুনিক ডিজিটাল এক্স-রে মেশিন প্রদান হয়। নতুন মেশিন স্থাপনের পরপরই তা কয়েক দফায় নষ্ট হয়। সর্বশেষ গত জুন মাসে এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হওয়ার পর আগস্ট মাসে এক্স-রে মেশিনটি মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হলেও এখন পর্যন্ত তা সচল হয়নি।

ভূক্তভোগী রোগীদের স্বজনরা অভিযোগ করেন, হাসপাতালের বাহির থেকে (ডায়াগনস্টিক সেন্টার) বাড়তি আয়ের জন্য এক্স-রে মেশিনটি সচল করতে সরকারী অপারেটরের অনীহার কারণে উন্নতমানের মেশিনটি সচল হচ্ছেনা। যেকারণে রোগীরা বাহির থেকে নাম সর্বস্ব ডায়গনষ্টিক সেন্টার থেকে অধিক টাকা ব্যয়ে এক্স-রে করাতে বাধ্য হচ্ছেন।

হাসপাতালের এক্স-রে বিভাগের অপারেটর পরিমল মন্ডল বলেন, মেশিন কখন নষ্ট হবে তা কেউ বলতে পারেনা। তবে এক্স-রে মেশিনটির কারিগরি ত্রুটির জন্য ঢাকা থেকে ইলেকট্রো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ার আসার কথা রয়েছে। এ ব্যাপারে হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আলতাফ হোসেন জানান, জরুরি ভিত্তিতে এক্স-রে মেশিনটি চালু করার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করা হয়েছে।