ত্রিপুরায় ফের সাংবাদিক আক্রান্ত

অনল রায় চৌধুরী, আগরতলা : ভারতের ত্রিপুরায় আবারো আক্রান্ত হয়েছে সাংবাদিক। সম্প্রতি শান্তনূ ভৌমিক নামের এক টিভি সংবাদিক সংবাদ সংগ্রহ করতে খুন হন। এ ঘটনার প্রতিবাদ এখনো চলছে। এর মধ্যে বুধবার ত্রিপুরা জার্নালিস্ট ফোরামের সভ্য রাকেশ সাহা খবর সংগ্ৰহ করতে যান আনন্দনগর
এলাকায়। সেখানে কবি সুকান্ত স্কুলে খবর সংগ্ৰহ করার সময় এলাকার যুবক রমেশ দাস তাকে বাধা দেয় এবং শারীরিকভাবে নিগ্রহ করে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত লাগে। রাকেশ রক্তাক্ত হয়। পরবর্তী সময় তাকে চিকিৎসা করানো হয়। এ খবর শুনে সংগঠনের সদস্যরা সেখানে ছুটে যান।

সংগঠনের সম্পাদক রাজীব চক্রবর্তীর নেতৃত্বে প্রায় ৩৫ জন সাংবাদিক শ্রীনগর থানায় গিয়ে পুলিশের সঙ্গে কথা বলেন এবং এফ আই আর দাখিল করেন।

ত্রিপুরা জার্নালিস্ট ফোরাম এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছে এবং অভিযুক্তের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছে। এ ধরনের ঘটনা উদ্বেগের এবং সংগঠন মনে করে সাংবাদিকদের উপর হামলা স্বাধীন মত প্রকাশের উপর আক্রমণ। যা বরদাস্ত করা হবে না। সংগঠন তার সমস্ত শক্তি দিয়ে এ ধরনের ঘটনার মোকাবিলা করবে এবং আক্রান্ত সাংবাদিক রাকেশ সাহার সঙ্গে থাকবে।

সংগঠনের পক্ষ থেকে পুলিশকে ১২ ঘণ্টার সময় সীমা বেঁধে দেয়া হয় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের জন্য। পরে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে সংগঠন ডেপুটেশন দেবার এক ঘণ্টার মধ্যেই। পুলিশের এই দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণকে সাধুবাদ জানায় ত্রিপুরা জার্নালিস্ট ফোরাম।