বছরে ৪৩ কেজি স্বর্ণ যায় সুইজারল্যান্ডের নর্দমায়!

অরণ্য কাশ্যপ: সুইজারল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি আবিষ্কার করেছেন, দেশটিতে প্রতি বছর অন্যান্য বর্জের সঙ্গে প্রায় ৪৩ কেজি স্বর্ণ পানি নিষ্কাষণের সময় নর্দমায় চলে যায়।

সুইস ফেডারেল ইন্সটিটিউট অব অ্যাকুয়াটিক সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি এর বিজ্ঞানীরা এক প্রতিবেদনে জানায়, দেশের বর্জ্য শোধনাগার দিয়ে নির্গমন হওয়া ময়লা পরীক্ষা করে স্বর্ণ পান তারা। তাদের মতে, বছরে ১.৮ মিলিয়ন ডলার মূল্যের স্বর্ণ ক্ষোয়া যায় এভাবে। আন্তর্জাতিক তথ্য সংস্থা বøুমবার্গ সুইজারল্যান্ড থেকে প্রথম প্রকাশ করা হয় তাদের প্রতিবেদন। গড়ে বিশ্বের শতকরা ৭০ ভাগ স্বর্ণ, সুইস রিফাইনারি হয়েই যায়।

বিজ্ঞানীরা জানান, বর্জ্যে পাওয়া স্বর্ণ পরিবেশের জন্য ঝুঁকি বহন করে না। তাদের পর্যবেক্ষন অনুযায়ী পুনরুদ্ধারের কাজ অনেক দীর্ঘ এবং অকার্যকর হবে। তাই তারা কিছু জায়গা খুঁজে পেয়েছেন যেখানে স্বর্ণের পরিমান বেশি পাওয়া যায়। টিসিনো রিফাইনারি এমনই একটি অঞ্চল, যেখানে মূল্যবান স্বর্ণ নিষ্কাশন প্রচেষ্টা এবং খরচের যথাযথ হবে।

স্বর্ণ ছাড়াও, প্রতি বছর ১.৭ মিলিয়ন ডলার মূল্যের প্রায় ৩ হাজার কেজি রূপা শোধনাগার থেকে হারিয়ে যাচ্ছে বলে জানান গবেষকরা। গবেষণায় সুইজারল্যান্ডের ৬৪ বর্জ্য শোধনাগারের পানি পরীক্ষা করে শিল্পজাত দেশটির মূল্যবান সম্পদ ক্ষোয়া যাওয়ার বিষয় জানতে পারেন তারা। দ্য ভার্জ