সাংবাদিক বানানোর প্রলোভন
মায়ের সাথে পরকীয়া ও মেয়ে ধর্ষণের চেষ্টায় ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার

রুল আমিন হাসান : রাজধানীর উত্তরখানে মা ও মেয়েকে সাংবাদিক বানিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মা’য়ের সাথে পরকিয়ার সম্পর্ক ও মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে এক ভুয়া সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই ভুয়া সাংবাদিকের নাম হযরত আলী রানা (৪২)। তিনি নিজেকে একটি নাম সর্বস্ব সাপ্তাহিক পত্রিকার সাংবাদিক দাবি করত।

উত্তরখান থানাধীন মাস্টার বাড়ি নামক এলাকা থেকে মঙ্গলবার রাতে মামলার পর পরই ওই সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি থানাধীন ধানগড়া নামক এলাকায়। সে বর্তমানে উত্তরখানের মাস্টার বাড়ি এলাকায় বসবাস করত।

এ ঘটনায় মামলার বাদি ও ভুক্তভোগী তরুণীর বাবা আমাদের সময় ডটকমকে জানান, ব্যবসার প্রয়োজনে ভোরে ধানমন্ডি চলে যেতে হয়। আর বাসায় ফিরতে ফিরতে গভীর রাত হয়। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সাংবাদিক পরিচয়ে রানা আমার বাসায় যাতায়াত শুরু করে। এক পর্যায়ে আমার স্ত্রী ও মেয়েকে সাংবাদিক বানিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ২/৩ মাস যাবত রানার বাসায় ও বেড়ানোর কথা বলে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ঘুরে বেড়াত।

তিনি বলেন, এতে আমার স্ত্রীর সাথে এক পর্যায়ে সে অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলে। যা পরবর্তীতে আমি টের পেয়ে স্ত্রীর কাছে এসব বিষয়ে জানতে চাইলে সে গত ৩ অক্টোবর ঘরের আসবাপত্র ভাংচুর করে চলে যায়।

তিনি অভিযোগ করে আরো জানান, আমার মেয়ের কাছ থেকে আরো জানতে পারি যে, গত আগষ্ট মাসের ২৫ তারিখে রানা আমার স্ত্রী ও মেয়েকে তার বাসায় নিয়ে যায়। পরবর্তীতে সুযোগ বুঝে মেয়েকে রানার রুমে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তাছাড়াও আমার বাসায় আরো তিন দিন আমার মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে বলে জানতে পারি।

এতদিন এসব বিষয় গোপন থাকার কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, এসব কথা আমার মেয়ে যদি কাউকে কিছু বলে তাহলে আমি ও আমার সন্তানদের বিষ খাইয়ে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরবর্তীতে আমার স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যাবে বলে জানায়।
এ বিষয়ে উত্তরখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমাদের সময় ডটকমকে জানান, উত্তরখানে এক তরুণীকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে রানা নামের এক ভুয়া সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই মায়ের সাথেও ভুয়া সাংবাদিকের অবৈধ সম্পর্ক ছিল বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় উত্তরখান থানায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। যার মামলা নং- ০৪। অপর দিকে ওই ভুয়া সাংবাদিককে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও ওসি জানান।