বিরলে এক যুবকের লাশ উদ্ধার

এম,এ কুদ্দুস, বিরল (দিনাজপুর) : বিরলে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে দিনাজপুর কোতয়ালী থানার উত্তর মহেশপুর গ্রামের বড়ব্রীজ সংলগ্ন জগৎ চন্দ্র রায়ের পুত্র সূর্য্য মাষ্টার (২০) এর লাশ বলে বুধবার রাত ৮ টার দিকে তার পরিবারের লোকজন সনাক্ত করেছে।

সে গত ১২ সেপ্টেম্বর দুপুর ২ টার দিকে উপজেলার আজিমপুর ইউপি’র শশুর ফনি চন্দ্র রায়ের বাড়ী থেকে পুজার খরচ করার জন্য বের হয়। তারপর সে আর বাড়ীতে ফিরেনি। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।
এলাকাবাসি সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার ফরক্কাবাদ ইউপি’র নলদীঘি গ্রামের জনৈক কৃষক বুধবার সকাল আনুমানিক ৯টায় শেকপাড়া গভীর নলকুপের পাশের ধান ক্ষেতে সার প্রয়োগ করতে আসে। জমিতে সার প্রয়োগ করার সময় সেখানে ফাঁকা জায়গায় ঐ যুবকের মরদেহ দেখতে পায়।

বুধবার সকাল ১১টায় পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঐ স্থান থেকে লাশ উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করে।

ফরক্কাবাদ ইউপির সদস্য কেতাবুল ইসলাম ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই যুবকের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। তবে ডান চোখের উপরে কপালে রক্তের চিহ্ন দেখা গেছে। শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মরদেহর পাশেই পরিত্যাক্ত একটি মানি ব্যাগ পাওয়া গেছে। মানিব্যাগে ওই যুবকের একক ও স্ত্রীসহ যুক্ত দুই কপি পাসপোর্ট আকারের ছবি ও গ্রামীণ ফোনের একটি (ডিজুস) সিম পাওয়া যায়।

বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মজিদ জানান, ময়না তদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত মৃত্যুর আসল বিষিয়টি নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে তিনি জানান।