ময়মনসিংহে বখাটেদের উৎপাত থেকে বাঁচতে ছাত্রীরা শিখছে মার্শাল আর্ট

প্রিন্স মাহামুদ আজিম : ইভটিজিং ও বখাটেদের উৎপাত ঠেকাতে ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া বেগম ফজিলাতুন্নেসা কলেজের ছাত্রীরা। আত্মরক্ষায় তারা শিখছে মার্শাল আর্ট। এতে মেয়েদের আত্মরক্ষার কৌশলের পাশাপাশি বাড়ছে আত্মবিশ্বাস। ছাত্রীদের সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী করতে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে কলেজ কৃর্তপক্ষ। এমন ব্যতিক্রম উদ্যোগ দেখে অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরাও অনুপ্রাণিত হচ্ছে।

চোখে মুখে আত্মপ্রত্যয়ের ঝিলিক। প্রত্যন্ত জনপদে কখনো উত্যক্তের শিকার, কখনোবা লাঞ্ছনার ঘটনা নিত্যদিনের। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে কারো উপর নির্ভরশীল না হয়ে লাঞ্ছনাকারীদের প্রতিহত করতে বিশ্বাসী ফুলবাড়িয়া বেগম ফজিলাতুলনেসা কলেজের ছাত্রীরা। তাই আত্মরক্ষার কৌশল হিসাবে মার্শল আর্ট শেখার এই উদ্যোগ

কারাতের শিক্ষক আব্দুল কাদের চৌধুরী বলেন, কারাতের কৌশলগুলো সাধারণত মানুষকে সাহসী করে তুলে, কৌশলী করে তুলে।যেমন একজন শক্তিশালী মানুষও কম শক্তিশালীর সাথেও পারে না শুধু মাত্র কৌশলের কারণে।’

মেয়েদের এমন উদ্যোগে পাশে দাঁড়িয়েছে কলেজ কৃর্তপক্ষ। ব্যবস্থা করা হয়েছে স্কুল শিক্ষকের। সাধুবাদ জানিয়েছে পুলিশ প্রশাসনও। কলেজের অধ্যক্ষ জনাব সাইদুল হক বলেন, ‘আমাদের প্রশিক্ষণ উদ্যোগ ফুলবাড়িয়াসহ মোটামুটি অনেক এলাকা ছড়িয়ে গেছে এবং কলেজের মেয়েদের ওপর এলাকায় ইভটিজিংয়ের যে প্রভাব ছিলো তা এখন একেবারে নেই বললেই চলে।’

ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা ছাত্রীদের বলবো তারা যেন আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখে, আমাদের ফোন নাম্বারে যে কোন প্রয়োজনে যেন ফোন করে। আমরা ইনশাআল্লাহ্‌ যারা সমাজবিরোধী কার্যকলাপে করে সেই বখাটে, ইভটিজারদের দমন করবো।

কৌশল রপ্ত করার পাশাপাশি আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধিতে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই কারাতে প্রশিক্ষণ চালুর পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের। সূত্র : যমুনা টেলিভিশন।