প্রধানমন্ত্রীর সাপোর্ট আমাদের ভাল খেলতে উৎসাহিত করে : সাকিব

জাহিদ হাসান : প্রধানমন্ত্রী মাঠে খেলা দেখতে গেলেই যেন আমাদের টাইগারদের সাহস দ্বিগুন বেড়ে যায়। এবং টাইগাররা যেন জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে। ঠিক সেই ঘটনাই ঘটল আজ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাঠে উপস্থিত থেকে উপভোগ করেছেন ঐতিহাসিক জয়। প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে ২০ রানে হারিয়ে সাজঘরে ফেরার সময় বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের করতালি দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি। বিসিবি সভাপতির রুমে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন ক্রিকেটাররা, তুলেছেন ছবিও। পরে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান জানিয়েছেন, ক্রীড়াপ্রেমী প্রধানমন্ত্রী কীভাবে তাদের উৎসাহিত করেন সবসময়।

খেলাশেষে মুশফিক-সাকিব-তামিমদের সঙ্গে আলাদাভাবে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। সংবাদ সম্মেলনে তথ্যটি দিয়ে ঢাকা টেস্ট জয়ের নায়ক সাকিব সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘উনি সবসময় আমাদের সাপোর্ট করেন, ক্রিকেট অনেক পছন্দও করেন। তার সাপোর্ট আমাদের আরও ভালো খেলতে উৎসাহিত করে।’

মঙ্গলবার ম্যাচের তৃতীয় দিনে মিরপুর স্টেডিয়ামে যেতে চেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। বিকেলে যেতে চাইলে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান তাকে জানান, খেলা আর বেশি বাকি নেই। তাই প্রধানমন্ত্রী আর স্টেডিয়ামে যাননি।

সাকিবও জানালেন সে কথা, ‘তিনি (প্রধানমন্ত্রী) আমাদের বললেন যে কালকেও আসতে চেয়েছিলেন, কিন্তু ব্যস্ততার কারণে আসতে পারেননি। পাপন ভাই (বিসিবি সভাপতি) তাকে বলেছেন, খেলা আর দুই-এক ওভার বাকি আছে। তাই তিনি আর আসেননি। আমাদের দলের জন্য এমন সাপোর্ট দরকার। প্রধানমন্ত্রীর সাপোর্ট আমাদের দারুণ উৎসাহ দেয়।’

বুধবার অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসের ৭০তম ওভারে প্রধানমন্ত্রী মিরপুর স্টেডিয়ামে প্রবেশ করেন। জায়ান্ট স্ক্রিনে একটু পর পরই ভেসে উঠছিল প্রধানমন্ত্রীর হাস্যোজ্জ্বল মুখ, আর দর্শকরা ভেসে যাচ্ছিল উচ্ছ্বাসে। কিছুক্ষণ পরই অলআউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ পায় ২০ রানের ঐতিহাসিক জয়। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে টাইগাররা এখন ১-০তে এগিয়ে।