সেনাবহিনীতে যোগ না দেওয়ায় ১৯ বছরের ইসরায়েলি কন্যার জেল

তানিয়া আলম তন্বী : ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীতে যোগদান না করায় ১৯ বছরের এক নারীকে কারাদ- দিয়েছে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে তাকে আটক রাখা হয়েছে।

দেশটির হাইফার নিকটবর্তী এক শহরে বসবাস করা ওই তরুণীর নাম নোয়া গুর গুলান। জেলখানায় আরও ৯ জন নারীর সঙ্গে তাকে রাখা হয়েছে। দুই সপ্তাহে একবার তার পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি দেওয়া হয়।

ইসরায়েলের সব ইহুদি, ড্রুজ ও সারকাশিয়ানদের ১৮ বছর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সামরিক বাহিনীতে যোগদান করা বাধ্যতামূলক। ২৯ ও ২৪ বছর বয়সী গুলানের দুই ভাই সামরিক সেনাবাহিনীতে যোগদান করে এই ঐতিহ্য রক্ষা করেছে।

অপরদিকে, দ্য ইনডিপেনডেন্টের প্রতিবেদন অনুসারে, শান্তিদূত হওয়ার জন্যই সামরিক বাহিনীতে যোগদানের ব্যাপারটি প্রত্যাখ্যান করে সে। গুলানের এই ব্যাপারটি এতোটাই মারাত্মক যে তাকে শুনানির সময় পর্যন্ত দেওয়া হয় নি।

তবে গুলান একটি খোলা চিঠিতে এ ব্যাপার সম্পর্কে ভালো করেই বুঝিয়ে লিখেছে। ২০১৪ সালে গাজা যুদ্ধের অভিজ্ঞতা ও শিশুদের সঙ্গে কাজ করার পর সে বুঝতে পারে যে, হিং¯্রতা নয় মানবতাই বড়। এ কারণেই এ ব্যাপারটি প্রত্যাখ্যান করে শাস্তি মাথা পেতে নিতেও দ্বিধা করে নি সে। দ্য টেলিগ্রাফ