নিল জনসন এখন কোথায়?

এম এ রাশেদ: যেন আসলেন, দেখলেন আর জয় করলেন! বলছি নিল জনসনের কথা। ক্রিকেট বিশ্বের একসময়ের সেরা দলগুলোর কাতারে ছিল বর্তমানে অনেকটাই ভঙ্গুর দলে পরিণত হওয়া আফ্রিকা মহাদেশের জিম্বাবুয়ে।

যদিও সদ্য শেষ হওয়া শ্রীলঙ্কায় ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটা ৩-২ ব্যবধানে জিতেছে একসময়ের ফ্লাওয়ার ব্রাদার, গাই হুইটাল আর নিল জনসনদের জিম্বাবুয়ে। ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর একমাত্র টেস্টটিও প্রায় জিতে নিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। কিন্তু অল্পের জন্য স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ম্যাচটি জিতে নেয়। সদ্য সমাপ্ত এশিয়ার দ্বীপ রাষ্ট্র শ্রীলঙ্কায় নিল জনসনদের উত্তরসুরীরা কি তবে তাদের পূর্বসুরীদের পথে এগিয়ে নিচ্ছেন জিম্বাবুয়েকে?

সেটা হয়তোবা একটা সিরিজে ভালো খেলেছে বলে এখনই হয়তোবা বলা যাচ্ছে না? জিম্বাবুয়ে তাদের সামনের সিরিজগুলোতে ধারাবাহিক ভালো খেলতে পারলেই সেক্ষেত্রে বলা যাবে নিল জনসনদের সোনালী যুগে প্রবেশ করছে আফ্রিকার সিংহরা।
জিম্বাবুয়ের সেই সোনালী যুগের বিশ্বখ্যাত ক্রিকেটারদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন নিল জনসন। যার আর্ন্তজাতিক ক্যারিয়ার তেমন একটা দীর্ঘ না হলেও সীমিত সময়ে জিম্বাবুয়ের জার্সি গায়ে নিজের জাত চিনিয়েছেন ২২ গজের মাঠে। জনসন ছিলেন একজন জাত অলরাউন্ডার। তার আরেকটা বড় গুণ ছিল তিনিই বিশ্বক্রিকেটের এমন একজন খেলোয়াড় যিনি দলের হয়ে উদ্বোধনী বোলার এবং একইসাথে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ছিলেন।

তিনি তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারে জিম্বাবুয়ের হয়ে ৪৮টি ওডিআইতে ১,৬৭৯ রান সংগ্রহ করেন। যার মধ্যে সর্বোচ্চ ছিল ১৯৯৯ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হার না মানা ১৩২ রান। শুধু তাই নয়, ওই ম্যাচে জনসন বল হাতেও ৪৩ রানে নেন ২ উইকেট। প্রায় ২১ মাসের এ স্বল্প পরিসরের ক্যারিয়ারে জনসন ১১টি অর্ধশতকের পাশাপাশি হাঁকিয়েছেন ৪ঠি শতক। ওডিআইয়ের পাশাপাশি টেস্ট ক্রিকেটেও দারূণ উজ্জ্বল ছিলেন এ জিম্বাবুইয়ান। মাত্র ১৩ টেস্টে এ বাঁহাতি ওপেনার করেন ৫৩২ রান। টেস্টে তিনি একমাত্র টেস্ট সেঞ্চুরিটি (১০২) করেছিলেন পেশোয়ারে পাকিস্তানের বিপক্ষে। এছাড়া টেস্টে তার ৪টি হাফ সেঞ্চুরিও ছিল।

জনসনের সময়ে বিশ্বক্রিকেটে টি-টুয়েন্টির যুগ চালু হয়নি। বর্তমান সময়ে টি-টুয়েন্টির এ যুগে তার মতন খেলোয়াড় থাকলে ক্রিকেটের সবচেয়ে সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে তিনি যে মাপের ক্রিকেটার ছিলেন, খুব নিশ্চিত করে এ কথা বলাই যায় যে, তিনি অসাধারণ দক্ষতা দেখাতে পারতেন এবং এটা অনেকটাই বিশ্বাসযোগ্য ব্যাপার।