উদ্ভট কথাবার্তা বলে আজহার নিজেকেও অসম্মান করছেন: রবি শাস্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক: রবি শাস্ত্রী নিজেকেই অপমান করছেন! ভারতের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনের মন্তব্য এমনই। আজহারের এই মন্তব্য ভারতীয় কোচের একটি উক্তির সূত্র ধরেই। কিছুদিন আগেই শাস্ত্রী কোহলিদের প্রশংসা করতে গিয়ে উচ্ছ্বাসে ভেসে গিয়েছিলেন। বলেছিলেন, কোহলি-অশ্বিনরা ইতিমধ্যেই যা অর্জন করেছে, অতীতের বড় বড় নামসমৃদ্ধ ভারতীয় দলও তা করতে পারেনি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাদের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতেই শাস্ত্রীর কণ্ঠে ছিল এমন উচ্ছ্বাস। এটা ভালো লাগেনি আজহারের। তাঁর মতে, ‘শাস্ত্রী হয়তো একটি সত্য এড়িয়ে গেছেন। শ্রীলঙ্কার এই দল মোটেও শক্তিশালী নয়! জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জিততেই তো এই লঙ্কান দলের ঘাম ঝরছে!’

ইন্ডিয়া টুডের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে নিজের ক্ষোভ জানিয়েছেন আজহার, ‘শাস্ত্রী উদ্ভট কথাবার্তা শুরু করেছেন। এসব বলে তিনি অন্যদের অসম্মান তো করছেনই, অসম্মান করছেন নিজেকেও। তিনি নিজেও তো অতীতের ভারতীয় দলের অংশ। আমার কাছে খুব অবাক লাগে এ ধরনের মন্তব্য শুনে। কিন্তু আমি তো আর কাউকে মন্তব্য করা থেকে বিরত রাখতে পারি না। কিন্তু শাস্ত্রীর মতো কেউ কিছু বললে আমি তাঁর সমালোচনা করবই।’

আলোচনাটা বেশ কয়েক দিন ধরেই চলছে। ঘরের মাঠে টানা সাফল্য পাওয়া ভারতীয় দলকে সত্যিকারের ‘সেরা দল’ বলা যায় কি না। অনেক বিশ্লেষকের মতেই কোহলিদের আসল পরীক্ষা এখনো আসেইনি। সামনেই তাঁদের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াতে সফরও এখনো বাকি। দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া কিংবা ইংল্যান্ডে সাফল্য পেলেই আসলে ভারতীয় দল হয়ে উঠবে অবিসংবাদিত সেরা। আজহারও ঠিক এমনটিই বলতে চেয়েছেন, ‘আমাদের সবারই উচিত অপেক্ষা করা। শ্রীলঙ্কা মোটেও খুব ভালো দল নয়।’

আজহারের মতে, দ্রুততর উইকেটে বাউন্স ও সুইংয়ের মধ্যে ভারতীয় দলকে ভালো করতে হবে। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে দেখা গেছে, সুইং করা বলে ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা সমস্যায় পড়ছে। আমি তাদের কোনো সাফল্য অস্বীকার করছি না। এটা তো তাদের দোষ নয়। কিন্তু সুইংয়ের সামনেই কোহলিদের আসল পরীক্ষাটা দিতে হবে।’ সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে, প্রথমআলো অনলাইন