তাজা খবর



রোহিঙ্গা ইস্যুতে যা করতে পারি আমরা

আমাদের সময়.কম
প্রকাশের সময় : 12/08/2017 -11:09
আপডেট সময় : 12/08/ 2017-11:09

 

ওয়ালিউর রহমান : ওআইসি মহাসচিব উখিয়ায় রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করে বলেছেন, মিয়ানমারের উচিত রোহিঙ্গাদের হবে ফিরিয়ে নেওয়া। নাগরিকত্ব দেওয়া। কারণ তারা মায়ানমারের নাগরিক। বার্মিজ বা মিয়ানমার সরকার যেন তাদের সেই সুযোগটা করে দেয়। ওআইসি মহাসচিব সঠিক কথাটিই বলেছেন। কারণ আমি মনে করি, এটা একটা সেটেল ইস্যু। সেটেল ইস্যু বলেই ১৯৭৭ সালে একটা চুক্তি হয়েছিল। তখন বার্মার প্রেসিডেন্ট এবং আমাদের এখানে যে শাসক ছিলেন তাদের মধ্যে একটা চুক্তি হলো। সেই চুক্তির পেছনে আমি ছিলাম। ৩ লাখ রোহিঙ্গা রিফিউজি আমাদের এখানে আসল। সেটার জন্য আমি তখন জেদ্দাতে গিয়েছিলাম। তখন যিনি ওআইসির মহাসচিব যারা ছিলেন, তার সঙ্গে শলাপরামর্শ করে ওখান থেকে একটা টিম নিয়ে এলাম। আমি ওআইসি ডেলিগেশনকে ওদেরকে ওখানে পাঠিয়ে দিলাম। জেনারেল নে উইন-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ হলো। এর ফলশ্রুতিতে জেনারেল নে উইন সাহেবকে ঢাকা নিয়ে এলাম। সেই ইতিহাসের সঙ্গে আমি ওয়ালিউর রাহমান জড়িত। সামরিক শাসক আর বার্মিজ প্রেসিডেন্ট নে উইন এ দুজনের ভেতরে একটা চুক্তি হলো। সেই চুক্তির যে সমস্ত পত্র সবকিছু আমার দ্বারা সাধিত হয়েছিল। ওআইসির অফিস থেকে এটা করা হয়েছিল। তারপরে ওই চুক্তির তিন মাসের মধ্যে ৩ লাখ রোহিঙ্গা চলে গেল।
এখন আবার রোহিঙ্গা নিয়ে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তার জন্য আমাদের ফরেন, হোম এবং ল’ মিনিস্ট্রিÑ এই তিনটা মিনিস্ট্রি একত্রিত হয়ে একটা প্রোডাক্টিভ সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কিভাবে আমরা এদেরকে সাহায্য করতে পারি। ওআইসির হাতকে কিভাবে শক্ত করতে পারি। একাধারে জাতিসংঘের যে টিম গেল মিয়ানমারে তারা একই কথা বলল যে, ওদেরকে ফিরিয়ে নেব। তাদের নাগরিকত্ব দিব। কেননা তারা বার্মিজ। ঠিক ওআইসির মহাসচিবও তাই বললেন। জাতিসংঘ বলছে এবং ওআইসি বলছে, তো আর কি চাই আমরা।
আমাদের আর বসে থাকা উচিত হবে না। জাতিসংঘ এবং ওআইসি কাজটা সহজ করে দিয়ে গেছে। কিন্তু এটাও বুঝতে হবে মায়ানমারেও সমস্যা আছে। আমরা অং সান সুচির হাতটাকে যেন আরও শক্ত করতে পারি। এটাও আমাদের মনে রাখতে হবে। উনার সমস্যা আছে, কারণ উনার ক্ষমতা নেই। কোনো সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট উনার হাতে নেই। উনার হাতে সেনা নেই। উনার হাতে কি আছে? সিভিল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন। এ ব্যাপারে তো সিভিল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের প্রয়োজন পড়ে না। সর্বশেষ জাতিসংঘ এবং ওআইসির পক্ষ থেকে যা বলেছে, তা অত্যন্ত ভালো সংবাদ। শুভ সংবাদ। এটা যেন আমরা ধীরে ধীরে পুশ করি, কাজ করি। জাতিসংঘ এবং ওআইসির সিদ্ধান্ত ও বক্তব্যগুলোর ফল যেন আমরা ঘরে তুলতে পারি সেভাবেই আমাদের এগোতে হবে।
পরিচিতি: রাজনৈতিক, নিরাপত্তা ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষক
মতামত গ্রহণ: তানভীন ফাহাদ
সম্পাদনা: আশিক রহমান

এক্সক্লুসিভ নিউজ

চিকিৎসায় বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদক: চিকিৎসাসেবায় গত ২৫ বছরে বাংলাদেশের তুলনায় ভারত অনেক... বিস্তারিত

মামা’র মর্যাদা বাড়াতে ইয়াসিনের তৎপরতা!

রিকু আমির : যাকে-তাকে ‘মামা’ ডাকলে মামা শব্দের অমর্যাদা হয়-... বিস্তারিত

বন্যা নিয়ন্ত্রণে রূপকল্প কোথায়?
আজ শুধুই হাহাকার

শিমুল রহমান : যাচ্ছো যখন যাও, কবে ফিরে আসবে আবার?... বিস্তারিত

আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে শোক দিবসের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর বেলাব উপজেলায় জাতীয় শোক দিবসের মিলাদ ও... বিস্তারিত

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালেও এখন থেকে ময়নাতদন্ত হবে

আনোয়ারুল করিম: রাজধানীর ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল... বিস্তারিত

‘ট্রাম্প থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন মার্কিন রাজনীতিবিদরা’

লিহান লিমা: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রভাব-প্রতিপত্তি ক্রমশ হ্রাস পাচ্ছে,... বিস্তারিত





আজকের আরো সর্বশেষ সংবাদ

Privacy Policy

credit amadershomoy
Chief Editor : Nayeemul Islam Khan, Editor : Nasima Khan Monty
Executive Editor : Rashid Riaz,
Office : 19/3 Bir Uttam Kazi Nuruzzaman Road.
West Panthapath (East side of Square Hospital), Dhaka-1205, Bangladesh.
Phone : 09617175101,9128391 (Advertisement ):01713067929,01712158807
Email : [email protected], [email protected]
Send any Assignment at this address : [email protected]