অর্থমন্ত্রীর পুরো জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত

 

ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী : অর্থমন্ত্রী ওয়েজবোর্ড নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন তার যে ভাষা, যে ভাবভঙ্গি তা সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য। কিভাবে তিনি সাংবাদিকদের সম্পর্কে এ ধরনের কথা বললেন? ন্যূনতম ভদ্রতা তার মধ্যে আমরা দেখতে পাইনি। এই রকম নি¤œমানের কথা কোনো একজন মন্ত্রী বলতে পারেন? এটা কল্পনার অতীত যে, একজন সাংবাদিক যখন জিজ্ঞেস করছিলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে এসে আট হাজার টাকা বেতন পাই। তখন তিনি বললেন যে, এমএ পাস করা পিওনও আছে আমাদের। অর্থ্যাৎ সাংবাদিকের যে মর্যাদা এবং তার কাজের যে ধরন তার মূলে তিনি আঘাত করেছেন। মানুষ যত ছোট চাকরিই করুক না কেন, আট হাজার টাকা বেতন হোক, ৫০ হাজার টাকা হোক, ১ লাখ টাকা হোকÑ আমাদের তো একটা মর্যাদা আছে। অর্থমন্ত্রী সেই মর্যাদা বজায় রাখেননি।
উনার এই মন্তব্য স্বাভাবিক বলে মনে হয়নি। আমার তো মনে হয়, উনার আর মন্ত্রী থাকা উচিত নয়। উনি এর আগেও নানা ধরনের বাজে কথা বলে বিব্রত হয়েছেন এবং সরকারকে বিব্রত করেছে। মানুষের মর্যাদায় আঘাত দেওয়া দেওয়ার মাধ্যমে সরকারকে বিব্রত করা লোকের প্রয়োজনটা কী? সাংবাদিকদের ওয়েজবোর্ড নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন তিনি, শুধু সাংবাদিক সমাজ নয়, পুরো জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত।
পরিচিতি: সিনিয়ির সাংবাদিক
মতামত গ্রহণ: তানভীন ফাহাদ
সম্পাদনা: আশিক রহমান ও মোহাম্মদ আবদুল অদুদ