নবীদের সংখ্যা কী দুই লক্ষ চব্বিশ হাজার?

জাকারিয়া হারুন : নবীগণ হলেন পৃথিবীতে মহান আল্লাহর প্রিয় বান্দা। দিকভ্রান্ত , সঠিক পথহারা বান্দাদের তারা সঠিক পথ প্রদর্শন করেন। আর নবীগণের মধ্যে সর্বপ্রথম হলেন হযরত আদম আ. এবং সর্বশেষ নবী ও রাসূল হলেন হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম। তাঁর মাধ্যমেই আল্লাহ তাআলা নবুওয়ত ও রিসালাতের ধারাবাহিকতা সমাপ্ত করেছেন। তাঁর পরে আর কোনো নতুন নবী বা নতুন রাসূল নেই। এই দু’জন এবং এঁদের মধ্যে আরও যত নবী-রাসূল আগমন করেছেন তাঁদের সবার প্রতি আমাদের ঈমান রয়েছে।

বিশেষত যাদের নাম আল্লাহ তাআলা কুরআন মজীদে উল্লেখ করেছেন তাদের উপর আমরা সুনির্দিষ্টভাবে ঈমান রাখি যে, তাঁরা আল্লাহর সত্য নবী এবং প্রিয় বান্দা। আর যাঁদের নাম ও ঘটনা কুরআন-হাদীসে উল্লেখিত হয়নি আমরা তাদের সম্পর্কে নাম-পরিচয়ের সুনির্দিষ্টতা ছাড়াই ঈমান রাখি।“ আমরা ঈমান রাখি আল্লাহর উপর, তাঁর ফেরেশতাগণের উপর, তাঁর কিতাবসমূহের উপর, তাঁর রাসূলগণের উপর।”

কিন্তু প্রশ্ন এই যে, হযরত আদম আ. থেকে আখেরী নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম পর্যন্ত সর্বমোট কতজন নবী এসেছেন? আসলে এর সংখ্যা জানা অপরিহার্য নয়। তাছাড়া এ প্রসঙ্গে বিভিন্ন ধরনের বর্ণনা রয়েছে। তবে একটি সংখ্যা এ প্রসঙ্গে অর্থাৎ দুই লক্ষ চবিবশ হাজারও উল্লেখ করা হয়। এ সম্পর্কে অনেকেই প্রশ্ন করেন যে, এ সংখ্যা কোনো রেওয়ায়েতে এসেছে কি না? এসে থাকলে তা কোন কিতাবে আছে?

আমরা অনেক তালাশ করেছি, কিন্তু কোথাও পাইনি। শেষে মোল্লা আলী কারী রাহ.-এর ‘ইকদুল ফারাইদ ফী তাখরীজি আহাদীছি শরহিল আকাইদ’-গ্রন্থে (ক্রমিক নং ৩৭) এ উক্তি পেলাম যে, হাফেয জালালী রাহ. বলেছেন-“ এ কথা আমি কোনো রেওয়ায়েতে পাইনি।”