এখনো অভিমানে আছেন বিএনপির অনেক সিনিয়র নেতা

150313130714_khaleda_zia_640x360_focusbangla_nocredit_134287নাশরাত আর্শিয়ানা চৌধুরী : বিএনপির নব গঠিত কমিটির ৫০২ জন নেতার মধ্যে অনেক নেতাই কাঙ্খিত পদ পাননি। কাক্সিক্ষত পদ না পাওয়ার কারণে অভিমানে আছেন অনেকেই। ৬ আগষ্ট থেকে ১৮ আগস্ট এত দিনেও ওই সব অভিমানী নেতারা একবারের জন্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেননি। বেগম খালেদা জিয়া না ডাকলে দেখা করতে যাবেন না এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
কাক্সিক্ষত ও মনের মতো পদ পাননি এমন নেতাদের একাধিক সূত্র জানায়, পদ পাওয়ার পরও একাধিক নেতা সব ধরণের যোগাযোগ বন্ধ করে রাখেন। কারো সঙ্গে কোন কথা বলেননি। দেশে থেকেও মোবাইল ফোন বন্ধ রাখেন। বেগম খালেদা জিয়ার কানেও এই কথা গেছে। আর তা জানলেও তিনি এখনও কোন নেতাকে ডেকে পাঠাননি।
বিএনপিতে ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পেয়েছেন এমন এক নেতা বলেন, কেউ যখন মাঠে ছিলো না তখন আমরাই মাঠে থেকেছি। দলের আন্দোলন সংগ্রামকে এগিয়ে নিয়ে গেছি। অথচ আমাদের মূল্যায়ন করা হলো না। যারা স্থায়ী কমিটির পদে থেকেও যথাযথভাবে কাজ করছেন না তারাই আবারও স্থায়ী কমিটির পদ পেলেন। আমরা কি করবো। আমাদেরকে এইভাবে বার বার অবহেলা করা হয়েছে। তিনি বলেন, এই ধরণের সন্তোষ দলের ভেতরে থাকা উচিত না। এই অসন্তোষ দূর করা দরকার। না হলে আমরা আস্তে আস্তে অন্যদের মতোই ভূমিকা রাখবো। বেশি কাজ যারা করছি তাদের যথাযথ মূল্যায়ন হচ্ছে না। এতে বিএনপির লক্ষ্য পূরণ হবে না।
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, নেতারা পদ না পেয়ে ক্ষুব্ধ এটা আমরা বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখছি। এগুলো অনেকটাই মিডিয়ার মানুষের সৃষ্টি। আসলে এগুলো ঠিক না। তিনি বলেন, দলের ভেতরে কোন ক্ষোভ আছে বলে আমি মনে করছি না। নেতাদের যোগ্যতা ও অবস্থান মূল্যায়ণ করেই ম্যাডাম দায়িত্ব দিয়েছেন। যাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সেই দায়িত্ব যতে তারা যথাযথভাবে পালন করেন সেটা মাথায় রাখতে হবে ও কাজ করতে হবে।