ফ্রান্সে সন্ত্রাসী হামলা ভেবে ব্রিটিশ পর্যটকদের পলায়ন

4-1-550x367লিহান লিমা: ফ্রান্সের মার্সেই শহরের মাদ্রিয়ায় বারবিকিউ তৈরির সময় ওই এলাকায় দশকের সবচাইতে ভয়াবহ আগুন লাগে। যা দমনে কাজ করছেন ২ হাজারেরও বেশি দমকল কর্মী। ডেইলি মেইল
ব্রিটিশ পর্যটকদের অত্যন্ত প্রিয় এলাকা মার্সেই’তে আগুন লাগার পরে স্থানীয় পর্যটকরা সেখানে থেকে পালাতে শুরু করে। সবাই এটিকে সন্ত্রাসী হামলা ভেবেছিলেন। অনেক ফ্লাইট বাতিল করা হয়। ইউরো ২০১৬’তে ফুটবলপ্রেমির সহিংসতা, ধর্মঘট এবং সন্ত্রাসী হামলার এই সময়ে এটিকেও সন্ত্রাসী হামলা ভেবে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন সবাই।
আগুনের তাপ ও ধোঁয়ার কারণে পর্তুগাল এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর বাড়িসহ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১৫০ বাড়ি ও হোটেল। মারা গিয়েছেন ৩ জন। ২০ জন দমকল কর্মীকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।
রোনালদো তার ইনস্ট্রাগ্রামে লেখেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অন্যদের বাঁচাতে কাজ করা দমকল কর্মীদের ধন্যবাদ।
আগুন বিস্ময়করভাবে প্রতি ঘন্টায় ২ হাজার ৫০০ মিটার গতিতে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। এই ঘটনায় সন্দেহভাজন ১ জনকে আটক করা হয়েছে।
সিভিল প্রটেকশন কর্মকর্তা রুবিনা লিয়েল জানান, মাদ্রিয়ার তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত বেড়েছে। এটি এই আইসল্যান্ডে সর্বোচ্চ রেকর্ড। কারণ সমুদ্র তীরের শহর হওয়ার কারণে এর তাপমাত্রা সমসময় ঠান্ডা থাকে।