পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়া খুবই বিরক্তিকর : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী (ভিডিও)

shariarসারীফা রিমু: পাকিস্তান তুরস্কের প্রতিক্রিয়াকে একপাল্লায় মাপার কোনো সুযোগ নেই। কারণ আলবদর প্রধান মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির দ- কার্যকর করা নিয়ে পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়াটি আমাদের জন্য খুবই বিরক্তের।
অপরদিকে তুরস্ক বাংলাদেশের একটি বন্ধুপ্রতিম দেশ । আমাদের সাথে রাজনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে। বাণিজ্যিক সম্পর্ক রয়েছে। আমাদের উন্নয়নে তাদের সহায়তার হাত রয়েছে সুতরাং আমি শুরুতেই বলেছি পাকিস্তান আর তুরস্ককে এক পাল্লায় মাপা যাবে না কিছুতেই।
শুক্রবার বেলা একটার দিকে নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়া আলম। আলবদর প্রধান মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির দন্ড কার্যকর করা নিয়ে পাকিস্তান ও তুরস্কের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেছেন তিনি।
পাকিস্তান সম্পর্কে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান যে শুধু ফাঁসির সময় নিন্দা করেছে তা না, কমনওয়েলথের একটি বৈঠকেও তারা বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে বক্তব্য দিয়েছে এবং সেটা আরো বেশি মাথা ব্যাথার কারণ বাংলাদেশের জন্য। ভবিষ্যতে বাংলাদেশ পাকিস্তানের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই বিষয়গুলো আমরা মাথায় রাখবো।
আমরা খুব গভীরভাবে বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণ করছি। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া কোন রাষ্ট্র বাংলাদেশের বন্ধু হতে পারে না। বাংলাদেশের মৌলিক কিছু বিষয় যেমন স্বাধীনতা সংগ্রাম ও তার ইতিহাস এটা যে নষ্ট করতে চাইবে সেটা কখনো বন্ধুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রের ব্যবহার হতে পারে না।
আলবদর প্রধান মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির দন্ড কার্যকর করা নিয়ে পাকিস্তান ও তুরস্কের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়া আলম।
এসময় তিনি আরো বলেন,স্থানীয় রাজনীতির অংশ হলেও জামায়াত ও জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি একের পর এক ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। যেমন এফবিআই কর্মকর্তাকে সচিবালয়ে জয়ের বিষয়ে জানার জন্য ঘুষ প্রদান করেছে । তারা মোসাদের এজেন্টের সাথে গিয়ে দেখা করেছে একধিকবার । তারা মার্কিন কগ্রেস ম্যানের স্বাক্ষর জাল করে বিবৃত্তি নেয়া চেষ্টা করছে এই যে ষড়যন্ত্রগুলো করছে। আমি বলবো আন্তর্জাতিক থেকে দেশের আভ্যন্তরিন চক্রান্তগুলো মোকাবেলা করাই আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।
তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ভারত, চীন ও জাপানের সাথে আমাদের সম্পর্ক আরো গভীর হয়েছে। আমাদের বিরুদ্ধে কোন চক্রান্ত থাকলেও এই রাষ্ট্রগুলোর সহযোগীতায় আমরা তা ঠেকাতে পারবো।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মতিউর রহমান নিজামীকে আমরা রাজাকার বলছি কিন্তু আন্তর্জাতিক কিছু গণমাধ্যমে তাকে ইসলামিক স্কলার বলছে। একটি সত্য কথা হলো, একটি দেশের গণমাধ্যম যা মনে করে তার বিপরিতে গিয়ে যদি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম অন্য কোন পরিচায় দেয়ার চেষ্টা করে তাহলে সেই সংবাদটি গ্রহণযোগ্যতা হারায়।

https://youtu.be/HjC5T8j8lNs