পাইপলাইনে গ্যাস সরবরাহ দিন দিন কমিয়ে নেওয়া হবে (অডিও)

download69জাহিদ হাসান : বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, আগামী ১০-১২ বছর আমাদের প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহার করা যাবে। তাই বর্তমানে গ্যাসের যে সংকট দেখা দিয়েছে তা থেকে উত্তোরণের জন্য সবাইকে এলপিজি গ্যাস ব্যবহার করতে হবে। কারণ আমরা আস্তে আস্তে আবাসিক খ্যাতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দিচ্ছি।
মঙ্গলবার বিবিসি প্রবাহকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি একথা বলেন।
নসরুল হামিদ বলেন, প্রায় ছয় মাস ধরে আমরা মানুষকে জ্বালানীর জন্য এলপিজি গ্যাস ব্যবহারের কথা বলে আসছি এবং আমরা আবাসিক খাতে গ্যাস বন্ধ করে দেওয়ারও ঘোষণা দিয়েছি।
নসরুল হামিদ আরো বলেন, আমরা এলপিজি গ্যাস জ্বালানী হিসেবে যাতে সবাই ব্যবহার করতে পারি এজন্য এলপিজি গ্যাসের দাম কমিয়ে আনার চেষ্টা করছি। আমাদের দেশের শহরগুলোতে একজন গ্রাহক ৫০০-৬০০ টাকা দিয়ে গ্যাস ব্যবহার করতে পারছে এবং তিনি এই ৫০০ টাকার বিনিময়ে গ্যাসকে অপচয়ও করছে। বিশেষ করে শীতকালে গ্যাসের অবচয় বেশি হয়।
চাকরির বাজারকে উন্নত করার জন্য কারখানাগুলোতে নিরবিচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহের কথা বলছেন নসরুল হামিদ। কারণ কারখানাগুলোতে উৎপাদন বৃদ্ধি পেলে দেশের অর্থনৈতিক জিডিপি বেড়ে যাবে।
বর্তমানে যারা গ্যাস সংকটে ভুগছে তাদের এলপিজি গ্যাস ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী। এছাড়া তার হাতে আর বিকল্প কোনো পথ নেই বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় রান্নার গ্যাসের তীব্র সংকট চলছে। এর মধ্যে একটি হচ্ছে ঢাকার কাঁঠালবাগান গ্রীনরোড এলাকা। যারা পরিবার নিয়ে বসবাস করেন তারা হয়তো মধ্যরাত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারেন গ্যাস আসার জন্য। কিন্তু যেসব শিক্ষার্থী বা চাকুরিজীবী মেসে থাকেন – তাদের সংকট আরো চরমে।
সূত্র : বিবিসি বাংলাhttps://youtu.be/WGiA4Ilj0GQ